খেলাধুলা

পর্তুগালকে হারিয়ে শেষ ষোলোয় দক্ষিণ কোরিয়া

কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপপর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে পর্তুগালকে হারানোর পর উরুগুয়ে-ঘানা ম্যাচের দিকে তাকিয়ে ছিল দক্ষিণ কোরিয়া। ওই ম্যাচে উরুগুয়ের কাছে ২-০ গোলে হেরেছে ঘানা। তাই মিলে গেছে সমীকরণ। ফলে পর্তুগালকে ২-১ গোল ব্যবধানে হারিয়ে রাউন্ড অব সিক্সটিন নিশ্চিত করে এশিয়ান জায়ান্ট দলটি। এদিকে হারের পরও গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই পরের রাউন্ডে রোনালদোর পর্তুগাল।

এ জয়ের ফলে ৩ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলে দুই নম্বরে রইল দক্ষিণ কোরিয়া। অথচ সমান পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপপর্ব শেষ করেছে উরুগুয়েও। দুদলের গোল ব্যবধানও সমান। কিন্তু কম কার্ড দেখার কারণে বিশ্বকাপে টিকে রইল কোরিয়ানরা। এদিকে সর্বোচ্চ ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে পর্তুগাল। আর তলানিতে থাকা ঘানার সংগ্রহ ৩ পয়েন্ট।

ইডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচের শুরু থেকেই বল দখলে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করে পর্তুগাল ফুটবল দল। তবে আক্রমণে সমানতালে খেলেছে দুদল। পুরো ম্যাচের ৬২ শতাংশ সময় নিজেদের কাছে বল রাখতে সক্ষম হয় ফার্নান্দো সান্তোসের শিষ্যরা। আর দক্ষিণ কোরিয়ার গোলবার বরাবর শট নিতে পেরেছে মোট ছয়টি।

অন্যদিকে পুরো ম্যাচের কেবল ৩৮ শতাংশ সময় নিজেদের নিয়ন্ত্রণে বল রাখতে পেরেছে দক্ষিণ কোরিয়ার ফুটবলাররা। আর পর্তুগালের গোলবার বরাবর মোট শট নিয়েছে ছয়টি।

শুরু থেকেই আক্রমণাত্ম ফুটবল খেলতে থাকা পর্তুগাল ম্যাচের পঞ্চম মিনিটেই লিড নেয়। ডানপ্রান্ত থেকে ডিয়েগো দালোতের দেয়া পাসে পর্তুগালকে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে দেন রিকার্ডো হোর্তা।

পিছিয়ে পড়া দক্ষিণ কোরিয়া সমতায় ফিরতে মরিয়া হয়ে ওঠে। চালাতে থাকে একের পর এক আক্রমণ। সেই সুবাদে ২৫তম মিনিটে সমতায় ফেরে এশিয়ান জায়ান্টরা। কর্নার থেকে বল রোনালদোর কাঁধে লেগে কিম ইয়ং গিয়োনের পায়ে আসলে দারুণ এক শটে গোল করে দলকে সমতায় ফেরান তিনি। এরপর ৩৩তম মিনিটে দালোতের শট রুখে দেন কোরিয়ার গোলরক্ষক। ফলে এগিয়ে যেতে পারেনি পর্তুগিজরা। আর প্রথমার্ধ শেষ হয় ১-১ গোল ব্যবধানেই।

দ্বিতীয়ার্ধের খেলায় দুদলই এগিয়ে যাওয়ার জন্য একের পর এক আক্রমণ চালাতে থাকে। কিন্তু দুদলের আক্রমণভাগের ফুটবলার ব্যর্থ হয়েছে রক্ষণে গিয়ে। এক পর্যায়ে মনে হচ্ছিলো ড্রই হতে যাচ্ছে ম্যাচটি। কিন্তু ম্যাচের নাটকীয় তখনও বাকি। যোগ করা সময়ে দক্ষিণ কোরিয়াকে এগিয়ে নেন হি চান। তাতেই ২-১ গোল ব্যবধানে জিতে নেয় কোরিয়া।

দক্ষিণ কোরিয়া একাদশ: (ফরমেশন: ৪-৩-২-১) কিম সিউয়েন গু, কিম ইয়াং জিয়ং, কিয়াং ওন, কিম জিন সু, কিম মুন হুয়ান, লি জ্যা সাং, ইয়াং ইন বিয়ম, জাংহো ইয়ং, গো গু সাং, সন হিউয়েন মিন, লি কাং ইন।

পর্তুগাল একাদশ: (ফরমেশন: ৪-৩-৩)

দিয়েগো কস্তা, অ্যান্টনিও সিলভা, পেপে, জাও কনসালো, দিয়েগো দালত, রুবেন নেভাস, ভিতিনহা, ম্যাথিউস নুনেস, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, রিকার্দো হোর্তা ও জাও মারিও।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!