বড়লেখা

বড়লেখায় ৩৩৩ নম্বরে ফোন, ত্রাণ নিয়ে গেলেন ইউএনও

সুলতান আহম’দ খলিল, সিনিয়র প্রতিবেদকঃ মৌলভীবাজারের বড়লেখায় কঠোর বিধিনিষেধের দ্বিতীয় দিনে উপজে’লার উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের ১০ জন ভুক্তভোগীদের কে তাথক্ষণিক ত্রাণ সামগ্রী পৌছে দিলেন ইউএনও খন্দকার মুদাচ্ছির বিন আলী।

জানাযায় আজ ২৪ জুলাই শনিবার সকালে ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের ১০ জন অসহায় ভুক্তভোগী মানুষ ৩৩৩ নাম্বারে কল দিয়ে সহায়তা চেয়েছিলেন। তারই ধারাবাহিকতায় দুপুর ১ ঘটিকার সময় ইউএনও নিজ গাড়িতে করে সেসব ভুক্তভোগীদের হাতে চাল, পিয়াজ, আলু তেল সহ খাদ্যসামগ্রী দিয়ে দেন।

ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে জানাযায় পাশের বাড়ির একজনের কাছ থেকে শুনেছিলেন ৩৩৩ নম্বরে ফোন করলে সহায়তা দিচ্ছে সরকার। তাই আশায় বুকবেঁধে ফোন করেন ৩৩৩-এ। সেখান থেকে পাওয়া ফোন নম্বর নিয়ে ফোন দেন উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তাকে। এবং তারা ফোন দিয়ে বলেন, স্যার আমি খুব ক’ষ্টে আছি। আমা’র সহায়তা প্রয়োজন সব শুনে এই দুপুরে ত্রাণ নিয়ে হাজির হন ইউএনও। সম্প্রতি সরকার কঠোর বিধিনিষেধ লকডাউনের চলমান থাকায় কর্মহীন হয়ে অর্ধাহারে-অনাহারে দিনাতিপাত করছিলেন তারা।

উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তা খন্দকার মুদাচ্ছির বিন আলী বলেন, ইতিমধ্যে কিছু ভুক্তভোগী ৩৩৩ নাম্বারে কল দেওয়ায় আমি নিরবে তাদের বাড়িতে নিয়ে ত্রাণ সামগ্রী পৌছে দিয়েছি। আর আজ সকালে একই এলাকা থেকে কয়েকজন কল করায় একসাথে তাদেরকে ইউনিয়ন পরিষদে এনেই তাদের হাতে তুলে দিয়েছি খাদ্যসামগ্রী।

তবে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আহমেদ জুবায়ের লিটন জানান ইতিমধ্যে ঈদের আগেই তাদের কে খাদ্যসামগ্রী দিয়েছি তবুও তারা আজ ৩৩৩ এ কল করায় উপজে’লা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ইউএনও নিজেই খাদ্যসামগ্রী নিয়ে এসেছেন।

উল্লেখ্য আজকের দ্বিতীয় দিনের কঠোর লকডাউনে ইউএনও খন্দকার মুদাচ্ছির বিন আলী, থা’না অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদারের নেতৃত্বে একদল পু’লিশ ও সে’নাবাহিনীর সদস্যদের সাথে নিয়ে কঠোর বিধিনিষেধ লকডাউনে স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মানাতে অ’ভিযান পরিচালনা করা হয়।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!