মৌলভীবাজার

শ্রীমঙ্গলে বন্ধুকে হ*ত্যাকারি বন্ধু সজীব গ্রে’প্তার, মৃ’ত্যুর আগে বন্ধুর নাম বলে যায় শরীফ

টাইমস ডেস্কঃ মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে শরীফ হ’ত্যা মা’মলার মূল আ’সামি ঘা’তক সজীবকে গ্রে’প্তার করেছে শ্রীমঙ্গল থা’না পু’লিশ। মৃ’ত্যুর আগ মুহূর্তে শরীফের দেওয়া জবানব’ন্দির সূত্র ধরেই মূল সজীবকে গ্রে’প্তারে অ’ভিযানে নামে পু’লিশ। সোমবার (১৯ জুলাই) ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে স্টেশন থেকে সজীবকে গ্রে’প্তার করে পু’লিশ।

মৃ’ত্যুর আগে শরীফের দেয়া জবান ব’ন্দির সূত্র ধরেই মূল আ’সামিকে গ্রে’প্তারে অ’ভিযানে নামে শ্রীমঙ্গল থা’না পু’লিশ। ঘটনার ৩১ ঘণ্টার মধ্যেই ঘা’তক সজীবকে গ্রে’প্তার করতে সক্ষম হয় শ্রীমঙ্গল থা’না পু’লিশ।

শ্রীমঙ্গল থা’নার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুস ছালেক জানান, নি’হত ও অ’ভিযু’ক্ত উভ’য়ই পরস্পর বন্ধু। তারা প্রথমে শহরের একটি পেট্রল পাম্পের কাছে ঝগড়া করে। এর জের ধরে শ্রীমঙ্গল প্রেস ক্লাবের কাছে শরীফকে ছু’রিকাঘাত করা হয়।

উল্লেখ্য, গত শনিবার রাত ৯টার দিকে শহরের কলেজ রোডে প্রেস ক্লাবের সামনে এ ঘটনা ঘটে। মৃ’ত্যুর আগ মুহূর্তে শরীফ নিজের নাম এবং সজিব নামে এক ব্যক্তি তাকে ছু’রিকাঘাত করেছেন বলে জানান।

মা’মলার ত’দন্তকারী কর্মক’র্তা এসআই মো. আল আমিন জানান, শ্রীমঙ্গল থা’নার ওসি আব্দুছ ছালেক ও পু’লিশ পরিদর্শক (ত’দন্ত) হু’মায়ুন কবিরের সার্বিক তত্ত্বাবধানে আ’সামি ধরতে আম’রা অ’ভিযানে নামি। আজ সোমবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে শ্রীমঙ্গল রেলস্টেশন থেকে সজীবকে গ্রে’প্তার করি। তিনি আরও জানান, ধারণা করা হচ্ছে সজীব ট্রেন যোগে পালানোর চেষ্টা করছিল।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!