বিয়ানীবাজার সংবাদ

যাত্রীদের একমাত্র ভরসা ট্রাক্টর!

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ব’ন্যার বিয়ানীবাজার-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়ক পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় সিলেটের সাথে বিয়ানীবাজারে পরিবহন বন্ধ রয়েছে। এতে অফিস-আ’দালতে যাওয়া মানুষজন পড়েছেন বিপাকে। বাস-সিএনজি চালিত অটোরিক্সা বন্ধ থাকায় ঝুঁ’কি নিয়ে বিকল্প পন্থায় অ’বৈধ ট্রাক্টরের মাধ্যমে চলাচল করছেন মানুষ।

শনিবার সকাল থেকে যাত্রীরা কোন ধরণের পরিবহণ না পেয়ে ঝুকি নিয়ে ট্রাক্টরের মাধ্যমে গন্ত্যব্যে যাচ্ছেন। তাতে দ্বিগুণ ভাড়া বহণ করতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে।

এদিকে প্রতিদিন যেখানে বিয়ানীবাজার-সিলেট সড়কে দৈনিক ৩০ থেকে ৩৫ টি বাস চলাচল করতো সেখানে বর্তামানে ১০ থেকে ১২ টি বাস ঝুকি নিয়ে চলাচল করছে। বিকাল ৪টার পর ঝুকি নিয়ে আর কোন বাস আসে’না যায়ওনা। বাস স্ট্যান্ডের দায়িত্বরত ম্যানেজার বলেন, বাস চলাচল একেবারেই সীমিত, অনেক ঝুকি নিয়ে কিছু বাস চলছে। যাত্রীদের কাছ থেকে ভাড়া বেশী আদায়ের ব্যাপারে তিনি জানান, শুনেছেন ১০ টাকা করে বাড়তি নেয়া হচ্ছে তবে সমিতির এবিষয়ে কিছুই জানেনা।

ব’ন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে এখন বিয়ানীবাজারের প্রায় ৯২ শতাংশ এলাকা। সুরমা’র পানি কমছে তবে কুশিয়ারা ও সুনাই নদীর পানি কমা’র ধীরগতির কারনে দূর্ভোগে পড়েছেন এই এলাকার মানুষ।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!