সুনামগঞ্জ

সুনাগঞ্জে শিক্ষকের বি’রুদ্ধে ছা’ত্রীকে যৌ’ন হয়’রানির অ’ভিযোগ

সুনাগঞ্জের ধ’র্মপাশা উপজে’লার পাইকুরাটি ইউনিয়নের ধুবালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক দানিছুর রহমান চৌধুরীর বি’রুদ্ধে ৫ম শ্রেণির এক ছা’ত্রীকে যৌ’ন হয়রানীর অ’ভিযোগ উঠেছে।

বুধবার (২৫ মে) বিকেল সাড়ে তিনটায় ওই ছা’ত্রীর মা উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তা ও উপজে’লা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মক’র্তার কাছে এ বিষয়ে লিখিত অ’ভিযোগ করেন।

অ’ভিযোগে জানা যায়, মঙ্গলবার বিদ্যালয়ে ৫ম শ্রেণিতে ৩ জন শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিল। টিফিন চলাকালীন সময় দুই জন শিক্ষার্থী দুুপুরের খাবার খেতে বাড়িতে চলে যায়। ওই সময় ভুক্তভোগী ছা’ত্রী একাই শ্রেণিকক্ষে ছিল। ওই ছা’ত্রী যখন শ্রেণিকক্ষ থেকে বের হতে চায়, তখন ওই শিক্ষক দানিছুর রহমান শ্রেণিকক্ষে উপস্থিত হয়ে তাকে পড়ানোর অজুহাতে একটি বই চায়। ছা’ত্রী বই নিয়ে শিক্ষকের কাছে গেলে শিক্ষক ওই ছা’ত্রীকে যৌ’ন হয়’রানি করেন। এসময় ওই ছা’ত্রী কৌশলে শিক্ষকের কাছ থেকে ছুটে বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি তার মাকে জানায়।

পরে ছা’ত্রীর মা বিদ্যালয়ে এসে প্রধান শিক্ষককে বিষয়টি জানালে তিনি আবার বিষয়টি ম্যানেজিং কমিটির সভাপতিকে জানাতে বলেন। এরপর ছা’ত্রীর মা বিষয়টি ম্যানেজিং কমিটির সভাপতিকে অবগত করলেও কোনো প্রতিকার পায়নি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য শফিকুল ইস’লাম জানিয়েছেন, মঙ্গলবার রাতে ওই শিক্ষকের বিচারের দাবিতে স্থানীয় এলাকাবাসীকে নিয়ে একাধিকবার বৈঠক হয়েছে। এদিকে বুধবার সকালে অ’ভিযু’ক্ত শিক্ষকের উপস্থিতিতে বিদ্যালয় খোলার সময় স্থানীয়দের বাধার মুখে পড়েন অন্য শিক্ষকরা।

অ’ভিযু’ক্ত শিক্ষক দানিছুর রহমান চৌধুীর বলেন, ‘চারজন শিক্ষার্থীর মধ্যে দুজন ক্লাসে ছিল। আর দুজন গোসল করতে চলে যায়। অ’ভিযোগকারী ছা’ত্রীকে টান দিয়ে এনে থাপা (থাপ্পর ) দিয়ে বলেছি আমি তোদের মা’রি না শাসনও করি। পরে ছা’ত্রীকে অন্য শিক্ষার্থীদের আনতে বলি।’

প্রধান শিক্ষক মন্মথ চন্দ্র তালুকদার বলেন, ‘আমা’র শিক্ষক বলেছেন তিনি ছা’ত্রীকে শাসন করেছেন আর ছা’ত্রীর পরিবার বলছে ছা’ত্রীকে হে’নস্তা করা হয়েছে।’

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক ইকবাল বলেন, ‘ওই শিক্ষক ছা’ত্রীর শরীরে স্প’র্শ করে থাকলে শিক্ষককে সর্বোচ্চ শা’স্তি দেওয়া হবে।’ তিনি বিদ্যালয়ে ঘটে যাওয়া বিষয়টি সামাজিকভাবে শেষ করবেন বলে দায়িত্ব নেন।

উপজে’লা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মক’র্তা মানবেন্দ্র দাস বলেন, এ সংক্রান্ত একটি লিখিত অ’ভিযোগ পেয়েছি।

উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তা মুনতাসির হাসান বলেন, বিষয়টি ত’দন্ত করে সত্যতা পাওয়া গেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!