কানাইঘাটসিলেট

কানাইঘাটে পঁচা মাংস বিক্রির অ’প’রাধে ৫০ হাজার টাকা জ’রিমানা

কানাইঘাট প্রতিনিধিঃ কানাইঘাট বাজারে শুক্রবার বিকেল ২টার দিকে ভালো মাংসের সাথে পঁচা দুর্গন্ধযু’ক্ত মাংস বিক্রি করার অ’প’রাধে শামীম আহম’দ নামে এক মাংস ব্যবসায়ীকে ভ্রাম্যমাণ আ’দালতের মাধ্যমে ৫০ হাজার টাকা নগদ জ’রিমানা করা হয়েছে।

পঁচা মাংস বিক্রির অ’প’রাধে উপজে’লা সহকারী কমিশনার (ভূমি) প্রথম শ্রেনির ম্যাজিস্ট্রেট মুনমুন নাহার আশা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইন ২০০৯এর ৫২ ধারায় এ জ’রিমানা করেন।

জানা যায়, বাজারের মাংস ব্যবসায়ী শামীম উদ্দিন ভালো মাংসের সাথে পঁচা দূর্গন্ধযু’ক্ত পোকে ধ’রা মাংস বিক্রি করলে একজন ক্রেতা দেড় কেজি মাংস কিনে বাড়ীতে নিয়ে যাওয়ার সময় মাংস থেকে দূর্গন্ধ হচ্ছে দেখে কিস ব্যাগ থেকে মাংস খোলে দেখেন পুরু মাংস পঁচা ও পোকে ধ’রা।

সাথে সাথে তিনি মাংস নিয়ে বাজার বণিক সমিতির সভাপতি আলতাফ হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হেকিম শামীমকে অবহিত করেন। একপর্যায়ে বাজার বণিক সমিতির নেতৃবৃন্দ মাংস ব্যবসায়ী শামীম আহম’দও তার পিতা সাহাব উদ্দিনকে পচাঁ মাংস বিক্রির বিষয়টি জানতে চাইলে প্রথমে তারা অস্বীকার করলে পরে পঁচা মাংস বিক্রির কথা স্বীকার করেন।

খবর পেয়ে সেখানে স্থানীয় সাংবাদিকরা যান এবং বিষয়টি তাৎক্ষণিক গণমাধ্যমে তোলে ধরেন। একপর্যায়ে খবর পেয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও প্রথম শ্রেণির ম্যাজিস্ট্রেট মুনমুন নাহার আশা থা’না পু’লিশকে সাথে নিয়ে মাংস বাজারে যান। এ সময় বণিক সমিতির নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে পঁচা মাংস বিক্রির কথা স্বীকার করলে ভ্রাম্যমাণ আ’দালতের মাধ্যমে মাংস ব্যবসায়ী শামীমআহম’দকে ৫০ হাজার টাকা নগদ জ’রিমানা করেন।

বাজার বণহক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হেকিম শামীম জানিয়েছেন, তারা সব সময় বাজার মনিটরিং করে থাকেন। পঁচা মাংস বিক্রির সংবাদ পাওয়া মাত্রই বিষয়টি উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তাকে অবহিত করেন। উপজে’লা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জামাল উদ্দিন সহ স্থানীয় সচেতন মহল ভবিষ্যতে কানাইঘাট বাজার সহ অন্যান্যহাট বাজারে রমজান মাস উপলক্ষ্যে যাতে করে কোন মাংস ব্যবসায়ী রোগাক্রান্ত পঁচা মাংস বিক্রি করতে না পারে এজন্য মনিটরিং কার্যক্রম জো’রদারের দাবী জানিয়েছেন।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!