কানাইঘাটসিলেট

কানাইঘাট নকলা খালের খনন কাজ পরিদর্শনে উপজে’লা চেয়ারম্যান

কানাইঘাট প্রতিনিধি ঃ পানি উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে ৬ কোটি ৮৪ লক্ষ টাকা ব্যয়ে কানাইঘাট নকলা খালের ১৬ কিলোমিটার পুনঃ খননের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। ইতি মধ্যে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ১৪ কিলোমিটার এলাকার খনন কাজ সম্পন্ন করেছেন। একাধিক ফেলুডার ও এক্সেলেটার দিয়ে কানাইঘাটের হাওর অঞ্চলের দীর্ঘতম নকলা খালের এ খনন কাজ করা হচ্ছে।

গত সোমবার বিকেলে কানাইঘাট উপজে’লা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মুমিন চৌধুরী নকলা খালের খনন কাজ পরিদর্শন করতে যান। এ সময় তিনি সিডিউল অনুযায়ী সরকারের এত বড় একটি উন্নয়ন মূলক কাজ সঠিক ভাবে করার জন্য কাজের দেখা শুনার সাথে জড়িত পানি উন্নয়ন বোর্ড সিলেটের কানাইঘাটে এসএ নিহার রঞ্জন দাস ও ঠিকাদারের মনোনীত লোকজনদের নির্দেশনা দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কানাইঘাট প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক ও উপজে’লা পানি উন্নয়ন বোর্ড কমিটির সদস্য নিজাম উদ্দিন, ইউপি সদস্য ইস’লাম উদ্দিন।

প্রসঙ্গত যে, প্রায় দেড় মাস থেকে চতুল হাওর এলাকা থেকে নকলা ব্রীজ পর্যন্ত ১৬ কিলোমিটার খালের খনন কাজ শুরু হয়। জানা গেছে দেশের অভ্যন্তরস্থ ছোট নদী খাল এবং জলা’শয় পুনঃ খনন প্রকল্পের ১ম পর্যায়ের আওতায় ৬কোটি ৮৪ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নকলা খালের খনন কাজ শুরু হয়। অনেকটা ভরাট হয়ে যাওয়া এ খাল গভীর করে নৌবাহন চলাফেরা করতে পারে এবং সহ খনন কাজের দুইপাশে মাটির বাঁধ দিয়ে মাটির সড়ক করা হচ্ছে। নকলা খালের সংস্কার কাজ হওয়ার কারনে কানাইঘাটের বড় হাওরের অনাবাদি জমি কৃষি ক্ষেতের আওতায় আনার পাশাপাশি হাওর অঞ্চলের মাটির বাঁধের সড়ক দিয়ে ৫নং বড়চতুল ইউনিয়ন, কানাইঘাট পৌরসভা সহ বিভিন্ন এলাকার মানুষ সহ’জেই তাদের গবাদি পশু নিয়ে কৃষি কাজের জন্য হাওর অঞ্চলে যেতে পারবেন। এতবড় একটি খনন কাজ যাতে করে দূনীর্তি ও অনিয়ম না হয় এজন্য সঠিক ভাবে কাজ হয়েছে কি না তা তদারকী’ করার জন্য অনেকে দাবী জানিয়েছেন। তবে কাজের ঠিকাদার আবুল কালাম জানিয়েছেন সঠিক ভাবে সিডিউল অনুযায়ী খনন কাজ হচ্ছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকতার্দের পাশাপাশি বিভিন্ন দপ্তরের উর্ধ্বতন কর্মকতার্রা কাজের এলাকায় এসে প্রতিনিয়ত তদারকী’ করে যাচ্ছেন।

উপজে’লা চেয়ারম্যান মুমিন চৌধুরী বলেন কানাইঘাটের হাওর অঞ্চলের ভরাট হয়ে যাওয়া খাল—বিল, নদ—নদী, জলা’শয় পুনঃ খনন অংশ হিসাবে সরকারের উদ্যোগে নকলা খালের খনন করা হচ্ছে। কানাইঘাটে কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে এসব কাজ করা হচ্ছে।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!