হবিগঞ্জ

আ’দালতের নির্দেশে ঘরে তালা, বন্ধ দুই বোনের পড়ালেখা

নিউজ ডেস্ক- আ’দালতের নির্দেশে বিরোধপূর্ণ জায়গার একটি বসতঘরে পু’লিশ তালা দেওয়ায় হবিগঞ্জের মাধবপুরে স্কুলপড়ূয়া দুই শিক্ষার্থীর লেখাপড়া বন্ধ হয়ে গেছে বলে অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে।

উপজে’লার বহরা ইউনিয়নের গাংগাইল গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। খবর সমকালের।

দুই শিক্ষার্থীর মা মিনারা খাতুন জানান, তার বসতভিটা নিয়ে আ’দালতে একটি মা’মলা রয়েছে। পু’লিশ আ’দালতের নির্দেশে মালামাল ক্রোক করে ঘরে তালা দিয়েছে। ঘরের ভেতর ৪র্থ শ্রেণির ছা’ত্রী সীমা আক্তার ও ৩য় শ্রেণির ছা’ত্রী সোমা আক্তারের বই-পুস্তক, জামাকাপড় ও খাতা-কলম রয়ে গেছে। তারা এখন অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন।

মিনারা জানান, মনতলা পু’লিশ ত’দন্ত কেন্দ্রের কাছে ৪ শতক জমিতে দীর্ঘদিন ধরে তারা বসবাস করে আসছেন। পার্শ্ববর্তী রাজা’পুর গ্রামের আতিকুর রহমান সেলিম তাদের বাড়ির মালিকানা দাবি করে আ’দালতে মা’মলা করেন। ৬ মাস আগে আ’দালত বসতবাড়িতে মাধবপুর থা’নাকে রিসিভা’র নিয়োগের আদেশ দেন।

এ আদেশের বি’রুদ্ধে তারা জজকোর্টে রিভিশন করেছেন। কিন্তু গত ২৫ নভেম্বর হঠাৎ মনতলা পু’লিশ ফাঁড়ির এক এসআই এসে তাদের ঘরে তালা লাগিয়ে সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে মাধবপুর থা’নার ওসি আব্দুর রাজ্জাক বলেন, তারা আ’দালতের নির্দেশ মেনে এ কাজ করেছেন।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!