আন্তর্জাতিক

কান্দাহারে ম’সজিদে হা’মলায় নি’হত বেড়ে ৪৭, দায় স্বীকার আই’এসের

নিউজ ডেস্ক- আ’ফগা’নিস্তানের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর কান্দাহারে একটি শিয়া ম’সজিদে বো’মা হা’মলার ঘটনায় নি’হতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৭ জন। আ’হত হয়েছেন আরও অন্তত ৭০ জন। শুক্রবারের (১৫ অক্টোবর) এ হা’মলার দায় স্বীকার করেছে জ’ঙ্গিগোষ্ঠী আই’এসের আ’ফগা’ন শাখা (আই’এস-কে)। খবর আল জাজিরার।

শুক্রবার কান্দাহারের বিবি ফাতিমা ম’সজিদে একাধিক বি’স্ফোরণ ঘটে। এটি ওই এলাকায় শিয়া মু’সলিম’দের সবচেয়ে বড় ম’সজিদ। তা’লেবানের সংস্কৃতি ও তথ্য বিভাগের কান্দাহার শাখার প্রধান হাফিজ সায়িদ হতাহতদের সংখ্যা নিশ্চিত করেছেন।

আ’ফগা’ন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র কারি সায়িদ খোসতি টুইটারে বলেছেন, কান্দাহারে শিয়াদের একটি ম’সজিদে বি’স্ফোরণ ঘটেছে জেনে আম’রা খুবই দুঃখিত। সেখানে আমাদের বেশ কয়েকজন স্বদেশী শহীদ ও আ’হত হয়েছেন। তিনি আরও বলেছেন, তা’লেবানের বিশেষ বাহিনী ওই এলাকায় পৌঁছেছে। দুষ্কৃতদের অবশ্যই বিচারের আওতায় আনা হবে।

হা’মলার কয়েক ঘণ্টা পরেই এর দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে আই’এসের খোরাসান শাখা (আই’এস-কে)। তারা জানিয়েছে, আই’এসের আত্মঘাতী হা’মলাকারীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, প্রথমজন ম’সজিদের বারান্দায় আর দ্বিতীয়জন তার বি’স্ফো’রক ভেস্ট ম’সজিদের ভেতরে বি’স্ফোরণ ঘটায়।

মাত্র এক সপ্তাহ আগে আ’ফগা’নিস্তানের উত্তরাঞ্চলীয় শহর কুন্দুজের একটি ম’সজিদেও একই ধরনের হা’মলা চালিয়েছিল আই’এস-কে। এতেও প্রায় অর্ধশত নি’হত ও শতাধিক আ’হত হন।

শুক্রবারের হা’মলার এক প্রত্যক্ষদর্শী বার্তা সংস্থা এএফপি’কে জানিয়েছেন, তিনি তিনটি বি’স্ফোরণের শব্দ শুনেছেন। একটি ম’সজিদের মূল দরজায়, একটি দক্ষিণ অংশে ও তৃতীয়টি অজুখানার দিকে।

মুর্তজা নামে এক আরেক প্রত্যক্ষদর্শী অবশ্য বলেছেন, চারজন আত্মঘাতী হা’মলাকারী এ ঘটনায় অংশ নিয়েছিল। দুজন ম’সজিদের গেটে বি’স্ফোরণ ঘটায়। এরপর বাকি দুজন দৌঁড়ে ভেতরে গিয়ে মু’সল্লিদের ভিড়ের মধ্যে বি’স্ফোরণ ঘটায়।

ওই প্রত্যক্ষদর্শী বার্তা সংস্থা এপি’কে জানিয়েছেন, জুমা’র নামাজে ম’সজিদটিতে সাধারণত ৫০০ জনের মতো মু’সল্লি হাজির থাকেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবিতে ম’সজিদের ভেতর অনেক লোককে আপাতদৃষ্টিতে মৃ’ত অথবা র’ক্তাক্ত শরীরে পড়ে থাকতে দেখা যায়।

হাসপাতাল সূত্রগুলো আল জাজিরাকে জানিয়েছে, বি’স্ফোরণে বহু মানুষ আ’হত হয়েছেন। আ’হতদের অবস্থা দেখে আশ’ঙ্কা করা হচ্ছে, মৃ’তের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!