সারাদেশ

রাসেল দম্পতির বি’রুদ্ধে আরেক অ’ভিযোগ

নিউজ ডেস্ক- ই-কমা’র্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মক’র্তা (সিইও) মো. রাসেল ও তার স্ত্রী’ শামীমা নাসরিনের (প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান) বি’রুদ্ধে এবার যশোরে লিখিত অ’ভিযোগ দিয়েছেন এক গ্রাহক।

শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাতে যশোরের কোতোয়ালি মডেল থা’নায় জাহাঙ্গীর আলম চঞ্চল নামে ওই গ্রাহক থা’নায় প্রতারণার অ’ভিযোগ দেন। বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন যশোরের কোতোয়ালি মডেল থা’নার ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা তাজুল ইস’লাম।

অ’ভিযোগ জানা গেছে, গত ২৯ মে ভোর রাত ৩টার দিকে ইভ্যালি থেকে এক লাখ ৩০ হাজার ১৪০ টাকা দিয়ে ভা’রতীয় বাজাজ কোম্পানির একটি পালসার মোটরসাইকেল কেনার জন্য টাকা দিয়েছিলেন জাহাঙ্গীর আলম চঞ্চল। টাকা পরিশোধের ৪৫ কার্যদিবসের মধ্যে পণ্যটি ডেলিভা’রি দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সাড়ে তিন মাস পার হলেও পণ্যটি ডেলিভা’রি দেওয়া হয়নি। তাদের হটলাইন নম্বরে যোগাযোগ করা হলেও কোনো সমাধান পাওয়া যায়নি। এভাবে দিনের পর দিন প্রতিষ্ঠানটি প্রতারণা করে আসছে।

ভুক্তভোগী জাহাঙ্গীর আলম চঞ্চল বলেন, ই-কমা’র্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি ডট’কমের চ’মকপ্রদ বিজ্ঞাপনে আকৃষ্ট হয়ে পণ্য কিনতে ওই প্রতিষ্ঠানকে এক লাখ ৩০ হাজার ১৪০ টাকা দিয়েছি। টাকা পরিশোধের সাড়ে তিন মাস হলেও আমা’র মোটরসাইকেলটি এখনো পাইনি। বিভিন্ন সময় তাদের হটলাইনে ফোন দিলে পণ্যটি দ্রুতই পাঠানো হবে এমন কথা বলা হয়। পরে ফোন দিলে আর রিসিভ করে না। তাই বাধ্য হয়ে থা’নায় লিখিত অ’ভিযোগ করেছি।

আরও পড়ুন… ইভ্যালির গ্রাহকরা যে প্রক্রিয়ায় ফেরত পেতে পারেন অর্থ
যশোরের কোতোয়ালি মডেল থা’নার ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা তাজুল ইস’লাম আরটিভি নিউজকে বলেন, ই-কমা’র্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মক’র্তা (সিইও) মো. রাসেল ও তার স্ত্রী’ শামীমা নাসরিনের (প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান) বি’রুদ্ধে লিখিত অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে। ত’দন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাসেল ও তার স্ত্রী’ শামীমা নাসরিনের বি’রুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অ’ভিযোগে গুলশান থা’নায় আরিফ বাকের নামে ইভ্যালির এক গ্রাহক মা’মলা করেন। মা’মলার পর বিকেলেই রাসেলকে গ্রে’প্তার করে র‍্যাব।

শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে ঢাকা মহানগর হাকিম আতিকুল ইস’লাম ইভ্যালির সিইও মো. রাসেল ও প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনকে তিন দিনের রি’মান্ড মঞ্জুর করে।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!