আন্তর্জাতিক

চট্টগ্রামের আ’ফগা’ন শিক্ষার্থীরা এখন যু’ক্তরাষ্ট্রে

নিউজ ডেস্ক- এশিয়ান ইউনিভা’র্সিটি ফর উইম্যান এর (এইইউডব্লিউ) দেড়শ আ’ফগা’ন শিক্ষার্থী বাংলাদেশে আসতে না পেরে মা’র্কিন যু’ক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হচ্ছেন।

দেশটির ১০ কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় তাদের ভর্তি এবং লেখাপড়া চালিয়ে যেতে যু’ক্তরাষ্ট্র সরকার প্রাথমিকভাবে তিন মাসের বৃত্তি দিচ্ছে।

বর্তমানে তাদের রাখা হয়েছে ওয়েসকনসিনের ম্যাককয় সে’না ঘাঁটিতে। এদের মধ্যে ৮৫ জন এইইউডব্লিউ’র শিক্ষানবিশ শিক্ষার্থী এবং ৪৭ জন স্নাতক শ্রেণির ছা’ত্রী। বাকি ১৬ জন এইইউডব্লিউ’র প্রাক্তন ছা’ত্রী (এলামনাই) ও তাদের স্বজন।
যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছা’ত্রীরা ভর্তি হচ্ছেন সেগুলো হলো- আরিজোনা স্টেট ইউনিভা’র্সিটি, ব্রাউন ইউনিভা’র্সিটি, কর্নেল ইউনিভা’র্সিটি, দি ইউনিভা’র্সিটি অব ডেলাওর, সাফোলক ইউনিভা’র্সিটি, ইউনিভা’র্সিটি অব নর্থ ক্যারোলাইনা, চার্লট ইউনিভা’র্সিটি, সাউদার্ন নিউ হ্যামশায়ার ইউনিভা’র্সিটি, কর্নেল কলেজ ও কলাম্বিয়া কলেজ।

এইইউডব্লিউ গত ১৫ সেপ্টেম্বর এ ব্যাপারে তাদের ওয়েবসাইটে তথ্য দিয়েছে। এইইউডব্লিউ’র প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি কা’মাল আহমেদ বলেন, সব শিক্ষার্থীকে পুরোপুরি বৃত্তির আওতায় এনে শিক্ষা কার্যক্রম নিশ্চিত করার জন্য আম’রা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

এইইউডব্লিউ সূত্র জানায়, গত ১৫ আগস্ট তা’লেবান যোদ্ধারা দেশটি দখল করে নিলে এইইউডব্লিউ’র ১৬২ জন ছা’ত্রী আ’ফগা’নিস্তানে আ’ট’কা পড়েন। তারা চট্টগ্রামে ফিরতে চাইলেও শেষ পর্যন্ত ১৩২ জন নিয়মিত শিক্ষার্থী, ১৬ জন এলামনাই এবং তাদের স্বজন গত ২৮ আগস্ট কাবুল থেকে যু’ক্তরাষ্ট্রের বিমানবাহিনীর উড়োজাহাজে করে কাতারের রাজধানী দোহায় যু’ক্তরাষ্ট্রের সাম’রিক ঘাঁটিতে ফেরেন।

এইইউডব্লিউ’র ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক অ’ভিবাসন সংস্থার (আইওএম) তত্ত্বাবধানে ইতোমধ্যে ১৪৮ আ’ফগা’ন ছা’ত্রী ও তাদের স্বজনকে যু’ক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনের ফোর্ট ম্যাককয় নামক সে’না ঘাঁটিতে নেওয়া হয়েছে। আগামী দুই সপ্তাহ তাদের বায়োমেট্রিক, মৌখিক পরীক্ষার পাশাপাশি যু’ক্তরাষ্ট্রে আবার স্থায়ীভাবে বসবাসের বিষয়টিও নিশ্চিত করা হবে।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!