আন্তর্জাতিক

মিশিগানে বাংলাদেশি মেয়রপ্রার্থীর যত ভাবনা

নিউজ ডেস্ক- মিশিগানে ঐক্যবদ্ধ প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটি গড়তে চান হ্যামট্রামিক সিটির মেয়রপ্রার্থী কা’মাল রহমান। অর্ধলাখের বেশি বাংলাদেশির বাস মিশিগানে। তাদের বেশির ভাগই থাকেন হ্যামট্রামিক, ড্রেটুয়েট, ওয়ারেন, স্টাইলিং হাইটস ও ট্রয় সিটিতে।

তিনি নির্বাচিত হলে ঐক্যবদ্ধ বাংলাদেশি কমিউনিটি গড়ার উদ্যোগ নেবেন। সাংবাদিকদের কাছে তার এমন ভাবনা তুলে ধরেন। হ্যামট্রামিকের একটি রেস্টুরেন্টে ক’দিন আগে চার প্রবাসী সাংবাদিক চা চক্রে বসেন। এ সময় ওই রেস্টেরেন্টে প্রবেশ করেন কা’মাল রহমান।

তিনি তখন সাংবাদিকদের পাশে গিয়ে বসেন, গল্প করেন। তার ভোট ব্যাংক বাংলাদেশি কমিউনিটি প্রসঙ্গে তার ভাবনা প্রকাশ করেন। এক সময় তার স্ত্রী’ ড্রেটুয়েট ফ্রিপ্রেসে সাংবাদিকতা করেছেন বলেও মন্তব্য করেন।

প্রার্থী কা’মাল রহমান বলেন, মিশিগানে কনস্যুলেট অফিস স্থাপন খুবই জরুরি। প্রবাসীদের এই গণদাবি পূরণের জন্য কমিউনিটির সকল পর্যায়ে সামাজিক আন্দোলন পালন করেছে।

মেয়র নির্বাচিত হলে বাংলাদেশিদের এই দাবি আদায়ে যা যা করার প্রয়োজন, কমিউনিটির নেতাদের সঙ্গে নিয়ে সবই করবেন। কনস্যুলেট অফিস অন্যকোনো স্থানে নয়, বাংলাটাউন খ্যাত এই হ্যামট্রামিকেই হবে।

তিনি বলেন, ব্যবসা বাণিজ্যের ক্ষেত্রে বাংলাদেশি পিছিয়ে রয়েছে, অথচ ব্যাপক সম্ভাবনা রয়েছে। এ সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে বাংলাদেশি-আ’মেরিকান আম’দানি-রফতানি ব্যবসা প্রসারিত করাসহ নতুন শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ার ক্ষেত্রে গুরুত্ব দেবেন।

হ্যামট্রামিকবাসীর এখন দু:খ জলাবদ্ধতা। ভা’রী বৃষ্টি হলে কিছু কিছু এলাকার ঘরের বেসমেন্টে পানি ঢুকে পড়ে এবং অনেক রাস্তায় বৃষ্টির পানি আ’ট’কে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। এই জলাবদ্ধতা নিরসনে অগ্রাধিকার দিয়ে কাজ করবেন।

তিনি জানান, স্বাধিকারের জন্য স্বাধীন হয়েছে বাংলাদেশ। আর যু’ক্তরাষ্ট্র স্বাধীন হয়েছে করের বোঝা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য। হ্যামট্রামিকবাসীর ওপর অহেতুক ট্যাক্স বৃদ্ধি বন্ধের পদক্ষেপ নেবেন। এছাড়া পার্কিং সমস্যা দূর করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

হ্যামট্রামিক সিটির প্রাই’মা’রি নির্বাচনে এবসেন্টি ব্যালটে আগাম ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। আগামী ৩ আগস্ট চূড়ান্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। আগাম ভোটপ্রদান থেকে কেউ বাদ পড়লে ৩ আগস্ট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশি এই প্রার্থী।

একাধিক ভোটারের অ’ভিমত, হ্যামট্রামিক সিটি বাংলাদেশি ও অ্যারাবিক জাতিগোষ্ঠীর ঘাঁটিতে পরিণত হয়েছে। এবারের নির্বাচনে মেয়র পদে চারজন লড়ছেন। এর মধ্যে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত একমাত্র প্রার্থী কা’মাল রহমান। তিনি বিগত নির্বাচনে একই পদে লড়াই করে মাত্র ৫৩ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হন।

ওই নির্বাচনে বাংলাদেশি দুইজন প্রার্থী ছিলেন। এই সুযোগে মেয়র হন পোলিশ বংশোদ্ভূত ক্যারন মায়োস্কি। এবার কা’মাল রহমান মেয়র পদে একমাত্র স্বদেশি প্রার্থী। সময় এসেছে আমাদের নিজেদের প্রার্থীকে বিজয়ী করার।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!