বড়লেখামৌলভীবাজার

বড়লেখায় ম’সজিদের নামকরণ নিয়ে সং’ঘর্ষ, আ’হত ১৬

সিনিয়র প্রতিবেদক, বড়লেখাঃ বড়লেখায় ম’সজিদের নামকরণ বিরোধের জের ধরে দু’পক্ষের সং’ঘর্ষে মহিলাসহ উভ’য়পক্ষের ১৬ ব্যক্তি আ’হত হয়েছেন। শনিবার আছরের নামাজের পর সং’ঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে উপজে’লার সুজানগর ইউনিয়নের সুজানগর গ্রামে। থা’না পু’লিশ ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেছেন। আ’হতদের ১২ জনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাদেরকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লে স্থা’নান্তর করেছে উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগ।

আ’হতরা হলেন- সুজানগর গ্রামের বাসিন্দা সুকরাম বিন আলা বক্স, বকুল বক্স, সজ্জাদ হোসেন, আবিদ আহম’দ, এমাদ হোসেন, আলিম উদ্দিন, মেহেরুন বেগম, শিপা বেগম, মহসিন আলী, আজিজুর রহমান, জাবের আহম’দ ও আজাদ আহম’দ।

এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, সুজানগর গ্রামের ম’সজিদের নামকরণ নিয়ে গ্রামবাসীর দু’টি পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে দ্ব›দ্ব চলছিল। একপক্ষ চাচ্ছিল গ্রামের জামে ম’সজিদের নাম হবে ‘সুজানগর জামে ম’সজিদ’ অ’পর পক্ষ চাচ্ছিল বক্সবাড়ি জামে ম’সজিদ। এর জেরধরে শনিবার আছরের নামাজের পর দু’পক্ষের মধ্যে সং’ঘর্ষ বাধে। এতে উভ’য় পক্ষের ১৫ ব্যক্তি আ’হত হন। খবর পেয়ে পু’লিশ নিয়ে থা’নার ওসি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নছিব আলী পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন।

সুজানগর ইউপি চেয়ারম্যান নছিব আলী জানান, সুজানগর গ্রামের দু’টি পক্ষের মধ্যে সং’ঘর্ষের খবর পেয়ে তিনি ও থা’নার ওসি ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেন। সং’ঘর্ষে উভ’য় পক্ষের কয়েকজন আ’হত হয়েছেন। আ’হতদের উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

বড়লেখা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডা. অমিত আচার্য্য জানান, সং’ঘর্ষের ঘটনায় ৪ জন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। ১২ জনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় সন্ধ্যার পর তাদেরকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লে স্থা’নান্তর করা হয়।

বড়লেখা থা’নার ওসি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার জানান, খবর পেয়েই পু’লিশ নিয়ে তিনি ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন। সং’ঘর্ষের ঘটনায় শনিবার রাত পৌনে ১০টা পর্যন্ত কোনো পক্ষই থা’নায় মা’মলা করেনি। মা’মলা করলে ত’দন্ত সা’পেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!