সারাদেশ

হরতা’লে অচল কোম্পানীগঞ্জ

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে সাবেক উপজে’লা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলকে পি’টিয়ে জ’খম করার প্রতিবাদে আওয়ামী লীগের ৪৮ ঘণ্টার হরতা’লের দ্বিতীয় দিনে কার্যত অচল হয়ে পড়েছে পুরো উপজে’লা।

রোববার (১৩ জুন) ভোর থেকে উপজে’লার চরফকিরা, চরকাঁকড়া, রামপুর, মুছাপুর, চরএলাহী, চরহাজারী, চরপার্বতী, সিরাজপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় হরতাল পালিত হচ্ছে।

সরেজমিন দেখা যায়, রাস্তায় গাছ কে’টে, গাছের গুড়ি ফেলে, টায়ার জ্বালিয়ে ও বৈদ্যুতিক পিলার দিয়ে ব্যারিকেড দিয়ে বি’ক্ষোভ মিছিল করছেন হরতালকারীরা।

এদিকে প্রায় আড়াইশ পু’লিশ, র‍্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী হরতাল ঠেকাতে মাঠে রয়েছে। পু’লিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা রাস্তায় কে’টে ফেলা গাছ ও প্রতিবন্ধকতা অ’পসারণ করলেও পুনরায় রাস্তায় ব্যারিকেড দিচ্ছেন হরতালকারীরা।

এদিকে শনিবার (১২ জুন) সারারাতও কোম্পানীগঞ্জের প্রত্যন্ত অঞ্চলের প্রধান প্রধান সড়কগুলোতে বন্ধ করে বাদল অনুসারীরা বি’ক্ষোভ করেছে বলে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও মেম্বাররা জানান।

চরএলাহী ইউপি চেয়ারম্যান মো. আবদুর রাজ্জাক জানান, সাবেক উপজে’লা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের ওপর হা’মলার ঘটনায় বসুরহাট পৌরসভা’র মেয়র আবদুল কাদের মির্জাকে গ্রে’প্তারের আগ পর্যন্ত আ’ন্দোলনকারীরা শান্ত হবে না।

মুছাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইস’লাম চৌধুরী শাহীন বলেন, ‘কোম্পানীগঞ্জের এ অস্থিতিশীল পরিস্থিতি জন্য দায়ী মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ও তার অনুসারীরা। তাদের বিচার না হওয়া পর্যন্ত বি’ক্ষোভ চলবে।’

কোম্পানীগঞ্জ থা’নার পু’লিশ পরিদর্শক (ত’দন্ত) মো. আবুল কালাম আজাদ জাগো নিউজকে জানান, পু’লিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মাঠে রয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। পু’লিশের করা মা’মলা’টি রেকর্ড করা হয়েছে। তবে বাদলকে আ’হতের ঘটনায় এখনো কোনো অ’ভিযোগ পাওয়া যায়নি। অ’ভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এর আগে শনিবার পু’লিশের সঙ্গে হরতালকারীদের সং’ঘর্ষের ঘটনায় একইদিন রাতে কোম্পানীগঞ্জ থা’নার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. নিজাম উদ্দিন বাদী হয়ে পু’লিশ অ্যাসল্ট মা’মলা করেছেন।

এরআগে শনিবার (১২ জুন) সকাল ৮টার দিকে বসুরহাটের মেয়র আবদুল কাদের মির্জার নেতৃত্বে প্রতিপক্ষ আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক উপজে’লা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের ওপর বসুরহাট বাজারে হা’মলা চালানো হয়। এতে বাদলসহ সাবেক ছাত্রনেতা হাসিব আহসান আলাল আ’হত হন। পরে এ ঘটনায় কাদের মির্জার গ্রে’প্তার দাবিতে ৪৮ ঘণ্টার হরতাল ঘোষণা করে উপজে’লা আওয়ামী লীগ।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!