মৌলভীবাজার

রাজনগরে সড়ক দুর্ঘ’টনায় প্রা’ণ গেল দুবাই প্রবাসীর

মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজে’লায় পৃথক দুটি ম’র্মা’ন্তিক সড়ক দুর্ঘ’টনার ঘটনা ঘটেছে। প্রথম ঘটনায় এক প্রাবাসীর মুত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার দিবাগত রাত ৮টায় উপজে’লার উত্তরভাগ ইউনিয়নের মুটুকপুর (কালামুয়া) সেতুর সম্মুখে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজে’লার হায়পুর গ্রামের দুবাই প্রবাসী ছবু মিয়া (৩৩) একটি মোটরসাইকেল যোগে হায়পুর থেকে মৌলভীবাজার-ফেঞ্চুগঞ্জ সিলেট মহাসড়কের সোয়াব আলী বাজারের দিকে যাচ্ছিলেন। হঠাৎ পিছন দিক থেকে এসে একটি দ্রুতগামী ট্রাক (ঢাকা মেট্রো ট-১৩-৪৫৭৮) ধাক্কা দিলে মোটরসাইকেল ছবু মহাসড়কে পড়ে যান। এ সময় তার সারা শরীর দূমড়েমুচড়ে যায়। শরীরের প্রত্যেক মাংশ খসে পড়ে। স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে এসে শুধু তার দুই পায়ের অস্থিত্ব পান। নি’হত ছবু হায়পুর গ্রামের রহিম মিয়া’র ছে’লে। তার স্ত্রী’,এক ছে’লে ও এক মে’য়ে সন্তান রয়েছে।

আ’মেরিকা প্রবাসী ও হায়পুর গ্রামের বাসিন্দা শাহ’জান আসুক জানান, ঘটনার খবর পেয়ে স্থানীরা আসলে চালক গাড়ি নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। তাৎক্ষনিক মুটুকপুর গ্রামের ট্রাক চালক আতিকুর রহমান মোটরসাইকেল যোগে ঘা’তক ট্রাক ও চালককে আ’ট’কিয়ে রাখেন।

তিনি আরো জানান, নি’হত ছবু দেড় মাস আগে দুবাই থেকে দেশে ছুটি কা’টাতে এসেছেন। এ ঘটনায় তার স্ত্রী’ ও বাচ্চারা একেবারে ভেঙ্গে পড়েছেন।

এদিকে ওই ঘটনাস্থলে রাতে দেখতে এসে আরো দুইজন পৃথক আরেক সড়ক দুর্ঘ’টনার স্বীকার হয়েছেন।

শনিবার দিবাগত রাত প্রায় ৯টার দিকে মৌলভীবাজার-ফেঞ্চুগঞ্জ-সিলেট মহসড়কের সোয়াব আলী বাজারের পাশে একটি ট্রাক এসে ধাক্কা দিয়ে সড়কের বাহিরে ফেলে দেয় তাদের। এই ঘটনায় আ’হত হন একই গ্রামের কনা মিয়া ও রফিক মিয়া। তাৎক্ষনিক স্থানীয় বাসিন্দারা ওই ঘটনাস্থলে আসলে ট্রাকসহ চালক পালিয়ে যায়। পরে আ’হতদের উ’দ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লে ভর্তি করা হয়।

রোববার সকালে স্থানীরা জানান, আ’হত কনা মিয়া’র শারীরিক অবস্থা আশ’ঙ্কাজনক। রাজনগর থা’নার ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা আবুল হাসিম রোববার দুপুরে জানান, এ ঘটনায় ঘা’তক চালক আবুল মালেকসহ ট্রাকটি পু’লিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!