সুন্দরবন উপকূলে ১৮৫ কিমি গতিতে আ'ঘাত হানতে পারে আম্পান

সুপার সাইক্লোন আম্পান গতি বাড়িয়ে দ্রুততার সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের উপকূলের দিকে এগিয়ে আসছে। এটি উত্তর-পূর্ব থেকে তুলনামুলকভাবে গতি পরিবর্তন করে উত্তরমুখি হচ্ছে। এই ঘূর্ণিঝড় ১৮৫ কিলোমিটার বেগে আ'ঘাত হানতে পারে সুন্দরবন উপকূলে।

কলকাতার সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে, শেষবেলায় গতি বাড়িয়ে দ্রুতলয়ে বাংলার উপকূলের দিকে এগিয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় আম্পান। মঙ্গলবার (১৯ মে) রাত সাড়ে ৭টা নাগাদ এটি ছিল দীঘা থেকে ৩৯০ কিলোমিটার দূরে। শেষ ৬ ঘণ্টায় ২০ কিলোমিটার/ঘণ্টা গতিবেগে এগিয়েছে। এ সময় কিছুটা শক্তিক্ষয়ও করেছে আম্পান। তবে সুন্দরবনের কাছে উপকূলে ঢোকার সময় ঝড়ের গতিবেগ ঘণ্টায় ১৮৫ কিলোমিটার হতে পারে।

রাতের পূর্বাভাসে আন্দাজ করা হচ্ছে, সাগর আর বকখালির মাঝামাঝি অঞ্চল দিয়েই ঘূর্ণিঝড় স্থলভাগে ঢুকবে। ঘূর্ণিঝড়টির যতটা উত্তর-পূর্ব দিকে এগোনোর কথা ছিল, তারচেয়ে তুলনামূলকভাবে বেশি উত্তরমুখী। এর ফলে কলকাতার প্রায় উপর দিয়ে, অথবা খুব কাছ দিয়েই ঘূর্ণিঝড় সরতে পারে।

সেক্ষেত্রে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ অনেকটাই বেশি হবে বলে আশ'ঙ্কা করা হচ্ছে। কলকাতায় ঝড়ের গতিবেগ ঘণ্টায় ১৩০ কিলোমিটারে পৌঁছতে পারে। কোথাও কোথাও ২০০ মিলিমিটারেরও বেশি বৃষ্টির আশ'ঙ্কা রয়েছে। মঙ্গলবার রাতেই রাজ্যে লাল সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর।

ঘূর্ণিঝড় ঢুকতে পারে বিকেল বা সন্ধ্যা নাগাদ। পথে কিছুটা দেরি হলেই ভ'য়াবহ বিপদের মুখে পড়ে যেতে পারে উপকূলীয় এলাকা।