সিলেটে সেনাবাহিনীর টহল শুরু

করো'নাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলায় সামাজিক সঙ্গ নিরোধ এবং হোম কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করতে সিলেটে কাজ শুরু করেছে সেনাবাহিনীর সদস্যরা। বুধবার (২৫ মা'র্চ) সকাল থেকে তারা করো'নাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিহতের জন্য কাজ শুরু করেন।

জে'লা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, সরকারের নির্দেশনা বাস্তবায়নে বেসাম'রিক প্রশাসনকে সহায়তা দেওয়ার লক্ষ্যে ‘ইন এইড সিভিল পাওয়ার’-এর আওতায় সারাদেশের মতো সিলেটেও সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। সিলেটে বেসাম'রিক প্রশাসনের সঙ্গে সমন্বয় করে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণের লক্ষ্যে জনসাধারণের মাঝে সামাজিক দূরত্ব বজায় নিশ্চিত করা, বিদেশফেরত নাগরিকদের কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করা এবং বিশেষ নজরদারির ব্যবস্থা করাসহ অন্যান্য কার্যক্রম গ্রহণ করবে সেনাবাহিনীর মোতায়েনকৃত সদস্যরা।

এসব কার্যক্রমের মধ্যে করো'নাভাইরাসে সংক্রমিত রোগীদের চিকিৎসা ব্যবস্থা, স'ন্দেহ'জনক ব্যক্তিদের কোয়ারেন্টিন ব্যবস্থাসহ নিরবচ্ছিন্নভাবে টহল দেবেন সেনাবাহিনীর সদস্যরা। টহলের পাশাপাশি তারা সিলেটে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও বেসাম'রিক প্রশাসনের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখবেন। এ ছাড়া যেকোনো প্রয়োজনে সার্বিক সহায়তা প্রদান করতে প্রস্তুত থাকবেন সেনাবাহিনীর সদস্যরা।

এ বিষয়ে সিলেটের অ'তিরিক্ত জে'লা প্রশাসক (সার্বিক) মুহাম্ম'দ আবুল কালাম বলেন, করো'নাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিহত করতে সেনাবাহিনীর সদস্যরা কাজ শুরু করেছেন। তারা মূলত সামাজিক সঙ্গ নিরোধ এবং হোম কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করতে কাজ করবে। এছাড়া জে'লা প্রশাসনকে সহায়তার জন্য অন্যান্য কার্যক্রমেও অংশ নেবে সেনাবাহিনীর সদস্যরা। তবে কত প্লাটুন সেনা মোতায়েন করা হয়েছে তা জানাতে পারেননি তিনি।