করো'নাভাইরাসঃকতটা সচেতন বড়লেখার মানুষ?

আশফাক জুনেদঃ বাংলাদেশে করো'নাভাইরাস প্রতিরোধে মানুষকে সচেতন করার জন্য সরকার যে প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছে, তা ঢাকার বাইরে অন্যান্য অঞ্চলের অনেক মানুষের কাছে এখনও পৌঁছায়নি।

করো'না সংক্রমণ রোধে পরিচ্ছন্ন থাকার বার্তাও সমাজের সব স্তরে এখনো পৌঁছেনি। নিম্নআয়ের অনেকেই জানেন না করো'না প্রতিরোধের উপায়।আবার যারা জানেন, করো'না নিয়ে তারা যতটা আতঙ্কিত ততটা সচেতন নন।

মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজে'লার পৌর শহরের অনেক ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষদের মধ্যে অনেকেই জানেন না করো'না ভাইরাস কি।

বড়লেখা পৌর শহরের অনেক ব্যবসায়ী ও পথচারীর সাথে আলাপ কালে বর্তমান বৈশ্বিক মহামা'রী আকার ধারণকারী করো'না ভাইরাস স'ম্পর্কে তারা কতটা জানেন এমন প্রশ্নে অনেকেই বলেছেন করো'না ভাইরাস কি তারা জানেন না।

আবার যারা জানেন তারাও এ ব্যপারে সম্পূর্ণ উদাসীন।তার প্রমাণ সরকারের নিষেধাজ্ঞা সত্যেও এক জায়গায় ব্যপক জনসমাগমের সৃষ্টি।

সরেজমিন সোমবার রাতে করো'নার সচেতনতা নিয়ে একটা টিভি চ্যানেলের লাইভ অনুৃষ্টানকে ঘিরে ব্যপক জনসমাগমের সৃষ্টি হতে দেখা যায়। রিপোর্টারের পক্ষ থেকে বার বার ভিড় না জমানোর অনুরোধ করা হলেও উপস্থিত জনসাধারণ তা আমলে নেয়নি। বরং ক্যামেরার পেছন পেছন তাদের দৌঁড়াতে দেখা গেছে।

এর মাধ্যমেই ধারণা করা যায় আসলে কতটা উদাসীন এখানকার মানুষ। করো'না নিয়ে সারা বিশ্বের মানুষ যখন ঘর থেকে বের হচ্ছে না সেই সময় এখানকার মানুষ ক্যামেরায় নিজেকে উপস্থাপন করার উদ্দেশ্য নিজের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা না করে গসজমায়েত হচ্ছে।

এছাড়া উপজে'লার বাজারগুলোর পরিস্থিতি আগের মতোই। টাকা লেনদেন, আর পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার ব্যাপারে বেশীরভাগই উদাসীন।

আর গণপরিবহনের অবস্থা আরও ভ'য়াবহ। এড়িয়ে চলতে বলা হলেও তা মানার উপায় নেই বেশীরভাগের। আছে পরিচ্ছন্নতা নিয়ে উদাসীনতা।

কয়েকটি গণপরিবহনের যাত্রী বলেন, আসলে আম'রা ঠিকভাবে এই রোগটির স'ম্পর্কে জানি না। কি করলে রোগটা হবে না সেটা অল্প শুনেছি তবে সেটা করতে পারছি না। গণপরিবহন এড়ানো সম্ভব না জানিয়ে এক যাত্রী বলেন, আম'রা কাজ করতে ঘর থেকে বের হই। গণপরিবহন ছাড়া কাজে যাব কিভাবে? আর মাস্কও পাওয়া যাচ্ছে না। পেলেও যা দাম সেটা সাম'র্থ্যের বাইরে।

চিকিৎসকরা বলছেন, করো'না রোধে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর কাছে পরিচ্ছন্নতার বার্তা পৌঁছানো জরুরি। আর মাস্ক বা হ্যান্ড স্যানিটাইজারের পিছে না ছুটে সাম'র্থ্য অনুযায়ী সাবান বা ছাই দিয়ে ঘন ঘন হাত পরিষ্কার রাখতে হবে। সবাই পরিচ্ছন্ন থাকলে রোগটির বিস্তার অনেকটাই রোধ করা সম্ভব।

এ বিষয়ে বড়লেখা উপজে'লা নির্বাহী কর্মক'র্তা শামীম আল ইম'রান বলেন,পৌর ও উপজে'লা প্রশাসনের পক্ষ থেকে লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে।এছাড়া উপজে'লা জুড়ে করো'না ভাইরাসে সচেতনভাবে চলা ফেরা করার জন্য মাইকিং করানো হয়েছ।তারপরও সাধারণ মানুষ করো'না ভাইরাস কি তারা জানেনা এটা দুঃখজনক।আম'রা করো'না ভাইরাস স'ম্পর্কে প্রচার প্রচারণা আরো বৃদ্ধি করবো।