দিরাই থেকে তিন সপ্তাহ ধরে মাদ্রাসা ছাত্র নিখোঁজ

টাইমস ডেস্কঃ সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে তিন সপ্তাহ ধরে শাহ আলম (১৭) নামে এক মাদ্রাসা ছাত্র নিখোঁজ রয়েছে। সে উপজে'লার করিমপুর ইউনিয়নের কেজাউড়া গ্রামের আব্দুল আউয়ালের ছে'লে। এ ব্যাপারে নি'খোঁজ শাহ আলমের ভাই আবারক মিয়া থা'নায় একটি সাধারণ ডায়রি করেছেন।

জানা যায়, হবিগঞ্জ জে'লার আজমীরিগঞ্জ উপজে'লার জলসুখা-মাধবপাশা হাফিজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র শাহ আলম ২২ ফেব্রæয়ারী মাদ্রাসায় যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বিদায় হয়। কয়েকদিন পর জানা যায় সে মাদ্রাসাতে যায়নি। এর পর সম্ভাব্য সকল স্থানে খোঁজাখুজি করেও এখন পর্যন্ত তাকে পাওয়া যায়নি।

জলসুখা-মাধবপাশা হাফিজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক হাফেজ জাকারিয়া জানান, ৪ ফেব্রæয়ারী প্রতিষ্ঠানের এক সপ্তাহের ছুটিতে শাহ আলম বাড়িতে গিয়ে আর আসেনি। মাদ্রাসা খোলার কয়েকদিন দিন পর আমি তার পিতার কাছে কল দিয়ে বিষয়টি জানিয়েছি। এরপর তার পরিবারের মাধ্যমে জানতে পারি সে নিখোঁজ রয়েছে। শাহ আলমের চাচা আব্দুল কুদ্দুস জানান, নি'খোঁজের ৬/৭ দিন পর অ'পর এক ছাত্রের মোবাইলে একটি নাম্বার থেকে কল দিয়ে জানায় শাহ আলম ঢাকা উত্তরায় আছে। ঐ নাম্বারে কল দেয়ার পর একজন রিসিভ করে শাহ আলম তার কাছে আছে বলে স্বীকার করে, কিন্তু এর পর থেকে মোবাইল নাম্বারটি বন্ধ রয়েছে।

দিরাই থা'নার ডিউটি অফিসার এস আই আজিজুর রহমা'র জানান, শাহ আলম নি'খোঁজ সংবাদটি থা'নায় ডায়রিভুক্ত করে এস আই রুপক কর্মকারকে ত'দন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।