হঠাৎ ‘জনসমুদ্র’ নয়াপল্টন

দুপুর ১টা ৫০ মিনিট পর্যন্ত বিএনপি কার্যালয়ের সামনে ছিল সুনসান নীরবতা। ১টা ৫১ মিনিটে দলের কার্যালয়ের সামনে এসে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হাবিবুন্নবী খান সোহেল। সেই সুযোগে ৮-১০জন বিএনপি কর্মী এসে সামনে বসে পড়ে। তারপর চতুর্দিক থেকে হঠাৎ মিছিল এসে জনসমুদ্র হয়ে যায় নয়াপল্টন। ‘জে'লের তালা ভাঙবো, খালেদাকে আনবো’, স্লোগান দিতে থাকেন তারা।

এর আগে নয়াপল্টন এলাকা ঘিরে শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকেই ছিল পু'লিশের বাড়তি নিরাপত্তা। স'ন্দেহ'জনক মনে হলেই তল্লা'শি চালানোর পাশাপাশি বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ও ঘিরে রাখে পু'লিশ।

এত মানুষের সমাগম দেখে এক পু'লিশের প্রশ্ন, এত মানুষ এলো কী'ভাবে?

এসময় নিরাপদ দূরত্বে সরে দাঁড়াতে দেখা যায় পু'লিশ সদস্যদের। শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ২টার দিকে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বি'ক্ষোভ সমাবেশ শুরু করে বিএনপি।

সমাবেশে উপস্থিত রয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইস'লাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, আফরোজা আব্বাস, গয়েশ্বর রায়, যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল প্রমুখ। বক্তব্য রাখেন সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হাবিবুন্নবী খান সোহেল।