বিশ্বনাথের মা'দক সম্রাট তবারকের স্ত্রী' ইয়াবা সম্রাজ্ঞী সাবিনা গ্রে'প্তার

হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে ১ কোটি ৮১ লাখ টাকা মূল্যের ৬১ হাজার পিস ইয়াবা জ'ব্দের ঘটনায় ইয়াবা মা'দক সম্রাজ্ঞী, মুখোশধারী মা'দক ব্যবসায়ী সাবিনা আক্তারকে (২৪) গ্রে'প্তার করেছে হবিগঞ্জ জে'লার গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)। গ্রে'প্তারকৃত সাবিনা বিশ্বনাথ উপজে'লার রামপাশা ইউনিয়নের পাঠাকইন গ্রামের মৃ'ত আলকাছ আলীর পুত্র, কুখ্যাত মা'দক সম্রাট তবারক আলী ওরফে ইয়াবা সুমনের স্ত্রী'। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে দক্ষিণ সুরমা থা'নার অ'তিরবাড়িস্থ শাহী মনু মিয়া কমিউনিটি সেন্টার কমপ্লেক্স থেকে সাবিনা আক্তারকে গ্রে'প্তার করে হবিগঞ্জের ডিবি পু'লিশ। গ্রে'প্তার অ'ভিযানে হবিগঞ্জ ডিবি পু'লিশের নেতৃত্ব দেন অ'তিরিক্ত পু'লিশ সুপার (সদর) রবিউল ইস'লাম, অ'তিরিক্ত পু'লিশ সুপার (হেড কোয়ার্টার) এসএম রাজু আহম'দ, এসআই আবুল কালাম আজাদ।

উল্লেখ্য, গত ৫ ফেব্রুয়ারী রাত দেড়টার দিকে সিলেট থেকে ঢাকাগামী হানিফ পরিবতনের একটি বাস থেকে গো'পন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই আবুল কালাম আজাদের নেতৃত্বে হবিগঞ্জ ডিবি পু'লিশের একটি দল ১ কোটি ৮১ লাখ টাকা মূল্যের ৬১ হাজার পিস ইয়াবাসহ ‘নাহিদা ও শাহিনা’ নামের দু’জন নারী মা'দক ব্যবসায়ীকে আ'ট'ক করে। আ'ট'ককৃত নাহিদা বেগম (৩৩) মাদারীপুর জে'লার কালকিনি থা'নার লক্ষীপুর গাবতলী বাজারের আসালত পেয়াদা ও সোহেদা বেগম দম্পতির কন্যা (এ/পি নায়ারণগঞ্জের ফতুল্লা থা'নার পাগলা) এবং শাহিনা খাতুন (৪০) বাগেরঘাট জে'লার মড়েলগঞ্জ থা'নার ভাইজো'রা গ্রামের মৃ'ত আবদুল কাদের ও হাজেরা বানু দম্পতির কন্যা (এ/পি খুলনার সোনাডাঙ্গা থা'নার বসুপাড়া মেইন রোড)।

নাহিদা বেগমের পেট ও বুকের মাঝখানে পিটিং করা আলাদাভাবে সাদা টেপ দিয়ে মোড়ানো অবস্থায় ১৫৫ প্যাকে'টে (প্রতি প্যাকে'টে ২০০পিছ করে) থাকা ৩১ হাজার পিস লাল রংয়ের ইয়াবা ট্যাবলেট এবং শাহিনা খাতুনের পেট ও বুকের মাঝখানে পিটিং করা আলাদাভাবে সাদা টেপ দিয়ে মোড়ানো অবস্থায় ১৫০ প্যাকে'টে (প্রতি প্যাকে'টে ২০০পিছ করে) থাকা ৩০ হাজার পিস লাল রংয়ের ইয়াবা ট্যাবলেট জ'ব্দ করে হবিগঞ্জের গোয়েন্দা শাখা।

গ্রে'প্তারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নাহিদা ও শাহিনা হবিগঞ্জ ডিবি পু'লিশকে জানায়, তবারক আলী ও তার স্ত্রী' সাবিনা আক্তার তাদেরকে দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবা বহন/বিক্রয় করে আসছে।

৬১ হাজার পিস ইয়াবা জ'ব্দ ও সাবিনাসহ ৩ জনকে গ্রে'প্তারের সত্যতা নিশ্চিত করে হবিগঞ্জ ডিবি পু'লিশের এসআই আবুল কালাম আজাদ বলেন, এ ঘটনায় হবিগঞ্জের চুনারুঘাট থা'নায় মা'মলা দায়ের করেছি। মা'মলা নং ৬ (তাং ৬.০২.২০ইং)।

তবারক-সাবিনাসহ গ্রে'প্তারকৃতদের অ'ভিযু'ক্ত করে হবিগঞ্জের চুনারুঘাট থা'নায় মা'মলা দায়ের করা হয়েছে জানিয়ে বিশ্বনাথ থা'নার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামীম মু'সা বলেন, মা'দক নির্মূলে আইন-শৃংখলা বাহিনী কাজ করে যাচ্ছে। উপজে'লার কোথাও মা'দক বিক্রির অ'ভিযোগ পাওয়া গেলে সাথে সাথেই আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।