আন্তর্জাতিক

সমালোচনা করায় জাতিসংঘ মানবাধিকার কর্মীদের ভিসা বন্ধ করল ইস’রাইল

ফিলি’স্তিনে অ’বৈধ বসতি নিয়ে সমালোচনা করায় জাতিসংঘ মানবাধিকার সংস্থার কর্মীদের ভিসা দেয়া বন্ধ করে দিয়েছে ইস’রাইল। যারা ইস’রাইলে রয়েছে তাদেরও জো’র করে বের করে দেয়া হচ্ছে। এর ফলে জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার ও মহাপরিচালকসহ ৯ জনকে ইস’রাইল ছাড়তে হবে। আর আগামী মাসে শেষ হচ্ছে অন্য আরও তিন জনের ভিসার মেয়াদ। একই সঙ্গে ফিলি’স্তিনি পপতারকা মোহাম্ম’দ আসাফকেও প্রবেশ করতে দিচ্ছে না ইস’রাইল।

পশ্চিম তীরে শতাধিক কোম্পানি অ’বৈধভাবে বসতি নির্মাণ করছে- এমন প্রতিবেদন প্রকাশের পর ফেব্রুয়ারিতে জাতিসংঘ মানবাধিকার কমিশনের সঙ্গে স’ম্পর্ক ছিন্ন করে ইস’রাইল। ইস’রাইলি দখলদারিত্বের বি’রুদ্ধে ভিডিও প্রকাশ করার পর ফিলি’স্তিনের পপ তারকা মোহাম্ম’দ আসাফকেও নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

মানবাধিকার কমিশনের ইস’রাইল ও ফিলি’স্তিনের পরিচালক ওম’র শাকির বলেন, তাদের কর্মীদের বহিষ্কার ইস’রাইলের দমননীতি এবং ফিলি’স্তিনের জনগণের আকাঙ্খার অবদমনের অংশ। তাদের উদ্দেশ্য ফিলি’স্তিনে তাদের অ’বৈধ তৎপরতার কোনো খবর যাতে প্রচার না পায়।

ওম’র শাকির আরও বলেন, মানবাধিকার কর্মীরা আগের চেয়ে বেশি করে ইস’রায়েলি কর্মকা’ণ্ডের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলবে। মানবাধিকার কর্মীদের চুপ করিয়ে দেয়ার মানে হলো তাদের অ’পকর্মের দিকে মানুষের মনোযোগকে আরও বেশি আকর্ষণ করা।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!