বিয়ানীবাজার সংবাদ

মাস্ক আছে তবে পকে'টে, বিয়ানীবাজারে এভাবেই চলছে মানুষ, নেই দৃশ্যমান তদারকি

বিয়ানীবাজার টাইমস প্রতিবেদনঃ বিয়ানীবাজার পৌরশহরে বিয়ানীবাজার-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের বাসচালককে মাস্কের কথা জিজ্ঞেস করলে তিনি হেসে জানান, মাস্ক আছে তবে পকে'টে। আরও জানান, ‘মাস্ক সঙ্গেই থাকে। ১২-১৩ ঘণ্টা ডিউটিতে সব সময় লাগিয়ে রাখতে পারি না।’ এই গাড়িচালকের প্রতিচ্ছবি পৌরশহর এবং পুরো উপজে'লাজুড়ে। স্বাস্থ্যবিধি মানতে বাধ্য করতে নেই কোনো দৃশ্যমান তদারকি।

বাসস্থানের বাইরে মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হলেও অধিকাংশ মানুষই তা মানছেন না। দিন যত যাচ্ছে, লোকজন ততই মাস্ক ব্যবহারে উদাসীন হচ্ছেন। মাস্ক ছাড়া বাইরে না যেতে সরকারের পক্ষ থেকে গণবি'জ্ঞপ্তি দেওয়াসহ নানা মাধ্যমে প্রচার চালানো হলেও তাতে কাজ হচ্ছে না। মাস্ক না পরলে জে'ল-জ'রিমানার ঘোষণা দেওয়া হলেও মাঠপর্যায়ে এর প্রয়োগ সীমিত। যার ফলে করো'নার সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ার আশংকা বাড়ছে।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সরেজমিন বিয়ানীবাজার উপজে'লার পৌর শহরের উত্তর বাজার থেকে দক্ষিন বাজার ঘুরে দেখা যায় শতকরা ৬০ থেকে ৭০ ভাগ লোকই মাস্ক ব্যবহার করছেন না। গণপরিবহনের শ্রমিক ও যাত্রী, হাটবাজারের ক্রেতা-বিক্রেতা, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্ম'রত কর্মক'র্তা-কর্মচারী, ধ'র্মীয় উপাসনালয়ে আগত ব্যক্তি, পথচারীদের মধ্যে মাস্ক ব্যবহারে উদাসীনতা দেখা গেছে।

বিয়ানীবাজার পৌর শহরের মাছ ও সবজি বাজার ঘুরে দেখা যায়,সবজি, মাছ, মুদি, ফল বিক্রেতাসহ অধিকাংশ দোকানদারের মুখেই মাস্ক নেই। অনেক ক্রেতাও আসছেন মাস্ক ছাড়া। অথচ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা অনুযায়ী, মাস্ক না পরে ক্রেতা-বিক্রেতারা কোনো পণ্য ক্রয়-বিক্রয় করতে পারবেন না। বাজারে মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বাজার কমিটি ও স্থানীয় প্রশাসনকে।

বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজে, পিএইচজি উচ্চ বিদ্যালয়,বিয়ানীবাজার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ঘুরে দেখা যায় সেখানেও একই অবস্থা।বেশিরভাগের মুখেই নেই মাস্ক। এদিকে চলছে একাদশ শ্রেনীতে ভর্তি কার্যক্রম।ফলে পৌর শহরের বিভিন্ন লাইব্রেরিতে ভিড় জমিয়েছে শিক্ষার্থীরা।যাদের মুখে নেই মাস্ক, মানছেন না সামাজিক দুরত্ব।

পৌরসভা রোডের বিপরীত পাশে কয়েকটি চায়ের দোকা্ন দেখা যায়, বেশ কিছু যু্বক চায়ের দোকানে আড্ডা দিচ্ছেন। তাঁদের কারও মুখেই মাস্ক নেই। আর দুজনের মাস্ক থুতনিতে নামানো। মাস্ক নেই কেনো জানতে চাইলে তারা উল্টো প্রশ্ন ছুড়ে দেন দেশে কি করো'না আছে?

হকার, শ্রমিক, রিকশা, ভ্যানচালকসহ সব পথচারী, হোটেল ও রেস্তোরাঁয় কর্ম'রত ব্যক্তিদের মাস্ক পরা বাধ্যতমূলক। পৌর শহরের বিভিন্ন রেস্তোরা ও হোটেলে দেখা যায়, রেস্তোরায় যারা প্রবেশ করছেন তাদের বেশিরভাগে মুখে নেই মাস্ক।এদিকে পৌর শহরের রিকশার যাত্রী ও চালক কারও মুখেই মাস্ক নেই। রিকশার হাতলে চালকের মাস্ক ঝুলছে।

এ বিষয়ে বিয়ানীবাজার উপজে'লা নির্বাহী কর্মক'র্তা মৌসুমি মাহবুব বলেন,করো'নাকালে আম'রা নিয়মিত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেছি এবং তা অব্যাহত আছে।

Back to top button