সুনামগঞ্জ

ছাতকে একদিনে পৃথক তিনটি দূর্ঘটনায় প্রা'ণ গেল শি'শু ও দিনমজুরের

হাসান আহম'দ, ছাতক::সুনামগঞ্জের ছাতকে একদিনে পৃথক তিনটি দূর্ঘটনায় শি'শুসহ দু’জনের মৃ'ত্যু হয়েছে। আ'হত হয়েছে আরও ৫জন। সোমবার সকাল, দুপুর ও বিকেলে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের ছাতক উপজে'লায় এ তিনটি ঘটনায় ঘটে।

জানা যায়, সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের চৌকা পয়েন্ট এলাকায় সকালে সড়ক পারাপারের সময় সুনামগঞ্জ থেকে সিলেটের দ্রুতগামী একটি প্রাইভেট কারের ধাক্কায় একবার হোসেন (১১) নামের এক শি'শু আ'হত হয়। গুরুতর আ'হত অবস্থায় তাকে উ'দ্ধার করে স্থানীয়রা সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতা'লে নিয়ে গেলে সেখানের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃ'ত ঘোষণা করেন। সে উপজে'লার দক্ষিণ খুরমা ইউনিয়নের পরশপুর গ্রামের দিনমজুর আবদুল মনাফের ছে'লে। সোমবার সকালে শি'শুটি বাড়ি থেকে বের হয়ে প্রতিদিনের মতো চৌকা পয়েন্টে ভ্রাম্যমান শ্রমিকের কাজে যাচ্ছিল। সড়ক পারাপারের সময় ঘা'তক প্রাইভেট কার তাকে ধাক্কা দিয়ে চলে গেলে তার মৃ'ত্যু হয়। সন্ধ্যার পর তার দাফন সম্পনś হয়েছে। এদিকে দুপুরে সড়কের জাউয়াবাজারের সেতুর পশ্চিমে যাত্রীবাহী বাস (নং-ঢাকা মেট্রো-জ-১১-০৮৪৫) ও প্রাইভেট কার (ঢাকা মেট্রো-গ-১২-৭৪৫৯) এর মধ্যে সং'ঘর্ষে চালকসহ ৫যাত্রী আ'হত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। প্রাইভেট কারের চালক ও আ'হত যাত্রীদের ভর্তি করা হয় সিলেট এমএজিওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতা'লে। তছলিম উদ্দিন ও ছবিরুল ইস'লাম নামের আ'হত দু’জন ছাড়া অন্যান্যদের নাম ঠিকানা পাওয়া যায়নি। খবর পেয়ে সড়কের জয়কলস হাইওয়ে পু'লিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দূর্ঘটনাকবলিত যাত্রীবাহী বাস ও প্রাইভেট কারটি আ'ট'ক করেন।

অ'পর দিকে বিকেলে গোবিন্দগঞ্জ পয়েন্টে নির্মানাধিন গোলচত্ত্বর এলাকায় সুনামগঞ্জগামী মালবাহী চলন্ত ট্রাকের ( ঢাকা মেট্রো-ট-২৪-০৩০৮) চাকার নীচ থেকে বড় একটি পাথর ছিট'কে পড়ে গুরুতর আ'হত হয় বাহার উদ্দিন (৬০) নামের এক পথচারী। গুরুতর আ'হত অবস্থায় তাকে সিলেট এমএজিওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতা'লে নিয়ে গেলে সেখানের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃ'ত ঘোষণা করেন। সে উপজে'লার ছৈলাআফজলাবাদ ইউনিয়নের কৃঞ্চনগর গ্রামের মৃ'ত আইনুল্লার দিনমজুর ছে'লে। মঙ্গলবার সকালে তার লা'শ দাফন সম্পনś হয়। লা'শ দু’টি ময়না ত'দন্ত ছাড়াই দাফন সম্পনś হয়েছে বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে সড়কের জয়কলস হাইওয়ে পু'লিশের ইনচার্জ আমির উদ্দিন জাউয়াবাজারে প্রাইভেট কার ও বাসের সাথে সং'ঘর্ষে ৫জন আ'হত হওয়ার সত্যতা স্বীকার করলেও শি'শু ও ভ্যানচালক মা'রা গেছে এ বিষয়ে তার জানা নেই। স্থানীয়দের অ'ভিযোগ, রাস্তা উনśয়ন ও আরসিসি কাজের নামে নির্মানাধিন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান শুরু থেকে গোবিন্দগঞ্জ পয়েন্টে ধীরগতিতে কাজ করছে। পয়েন্ট সংলগ্ন এলাকায় প্রাচীনতম একটি কারভা'র্ট'কে সংস্কার না করে ওই কালভা'র্টের উপর করা হয়েছে আরসিসি কাজ। তাদের অবহেলায় গোলচত্ত্বরের কিছু অংশে বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। মিনি পুকুর ও গর্তে পড়ে প্রতিদিন ছোট বড় দূর্ঘটনা ঘটছে। নির্মানাধিন সড়ক কুড়াকুড়ি করে মাটির নীচ থেকে বড় বড় পাথর বেরিয়ে আসছে। ওই পাথরগুলো আবারও রাস্তার উপর দেয়ার ফলে মালবাহী ট্রাক চলাচলের সময় চাকার নীচে পড়ে একটি পাথর ছিট'কে পড়ে বাহার নামের দিনমজুরের মৃ'ত্যু হয়। পাথরটি বাহারের বুকে ও হাতে প্রচন্ড আঁঘাত লাগে। একটি হাতের হাড়ও ভেঙ্গে গেছে।

Back to top button