সিলেট

কানাইঘাটে ১০ জোয়াড়ী গ্রে'ফতার

কানাইঘাট প্রতিনিধি: কানাইঘাটে ১০ জোয়াড়ীকে আ'ট'ক করেছে থা'না পু'লিশ। জানা যায়, শুক্রবার (২ নভেম্বর) গভীর রাতে গো'পন সংবাদের ভিত্তিতে উপজে'লার রাজাগঞ্জ ইউনিয়নের তালবাড়ী সোনার বাংলা বাজারে একটি মুদীর দোকানে জুয়া খেলার সময় জোয়ার বোর্ড থেকে ১০ জোয়াড়ীকে গ্রে'ফতার করা হয়।

এ সময় নগদ টাকা সহ জুয়া খেলার সরঞ্জাম উ'দ্ধার করে পু'লিশ। আ'ট'ককৃতরা হলেন, খালগ্রামের নুর মিয়ার পুত্র ইরশাদ আলী (২০), মৃ'ত আব্দুল আজিজের পুত্র মামুন আহম'দ (২১), আজির উদ্দিনের পুত্র দুলাল আহম'দ (১৮), আসমান আলীর পুত্র মুজাহিদ আলী (১৯), আজির উদ্দিনের পুত্র মুদী দোকানের ব্যবসায়ী মিনহাজ উদ্দিন (২৬), তালবাড়ী লক্ষীপুর গ্রামের আব্দুল কাদেরের পুত্র রুহুল আমিন (২৪), বশির আহম'দের পুত্র কাম'রুল ইস'লাম (২২), আব্দুল ওয়াহাবের পুত্র চুনু মিয়া (২৭), মৃ'ত সিকন্দর আলীর পুত্র অলি মিয়া খান (২০) ও বাদল খানের পুত্র সেবুল আহম'দ খান (২০)। আজ শনিবার সকালে আ'ট'ককৃতদের আ'দালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে স্থানীয়রা জানান, তালবাড়ী সোনারবাংলা বাজারের কিছু প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় প্রায়ই সন্ধ্যার পরে বাজার সহ এলাকার বিভিন্ন স্থানে ম'দ ও জুয়ার আসর বসে থাকে। যার কারনে এলাকার তরুণ ও যুব সমাজরা দিন দিন নানা অ'প'রাধ কর্মকা'ন্ডের সাথে জড়িয়ে পড়ছে। স্থানীয়রা এর বিরোধীতা করতে চাইলেও প্রভাবশালীদের কারনে কোন ভাবেই পেরে উঠতে পারছেন না। চিহ্নিত ১০ জোয়াড়ীকে পু'লিশ গ্রে'ফতার করায় স্বঃস্তির নিঃশ্বা'স ফেলেছেন এবং জুয়া ও ম'দের আসরের মূল হুতা হেলাল আহম'দ সহ অ্যান্যদের আইনের আওতায় এনে বাজার থেকে এ ধরনের অসামাজিক কার্যকলাপ বন্ধের দাবী জানিয়েছেন।

থা'নার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম জানান, মা'দক ও জুয়ার বি'রুদ্ধে কানাইঘাট থা'না পু'লিশের অ'ভিযান অব্যাহত আছে এবং থাকবে। এক্ষেত্রে পু'লিশ প্রশাসনকে সহযোগিতা করার জন্য তিনি সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!