প্রবাস

ইতালীর ভিসার জন্য আবেদন শুরু, যা জানালেন ইতালী প্রবাসীরা (ভিডিওসহ)

বিয়ানীবাজার টাইমসঃ বাংলাদেশীদের জন্য দীর্ঘ ৮ বছর পর সুখবর দিলো ইতালী। ইতালিতে চালু হওয়া স্পন্সরশিপ ভিসায় বাংলাদেশিরাও আবেদন করতে পারবেন। সর্বমোট ৩০ হাজার ৮৫০ জন আবেদনকারীকে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে। দুই ক্যাটাগরিতে আবেদনপত্র গ্রহণ করা হবে। সদ্য প্রকাশিত ২৪ দেশের তালিকায় বাংলাদেশকে যু’ক্ত করে ইতালী প্রশাসন। মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। ব্যক্তিগত স্পিড ও কাপ অফিস থেকে আবেদন করতে পারবেন।

ঘোষনার পরপর ইতালীতে বসবাসকারি প্রবাসীরা এ বিষয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের বক্তব্য তুলে ধরেন। তারা আবেদনের ক্ষেত্রে দালালদের সাথে যোগাযোগ না করতে বলেন। আবেদনের পর ফলাফল আসতে ৩-৬ মাস লাগতে পারে জানান।

দুই ক্যাটাগরিতে আবেদন করা ভিসার জন্য সিজনাল বা মৌসুমি কাজের জন্য ১৮ হাজার আবেদনকারীকে প্রবেশ করতে দেয়া হবে ইতালিতে। কৃষি , হোটেল ট্যুরিজম ক্ষেত্রে সাধারণত ৬ মাসের জন্য নেওয়া হয় এসব শ্রমিক। ৬ মাস পর কাজের চুক্তি শেষে ফিরতে হবে দেশে।

অন্য ক্যাটাগরিতে স্থায়ী , স্ব-কর্মসংস্থান ও কনভেনশনান ক্ষেত্রে নেওয়া হবে ১২ হাজার ৮৫০ জনকে। এ শ্রেণীর কর্মী এবং বিনিয়োগকারীরা ইচ্ছামতো যত দিন ইচ্ছা ইতালিতে থাকতে পারবেন এবং স্থায়ীভাবে বসবাস করার সুযোগ গ্রহণ করতে পারবেন ভবিষ্যতে।

একসময় বাংলাদেশ থেকে ইতালিতে নিয়মিত সিজনাল বা কৃষি স্পন্সরে লোকজন আসত। নিয়ম অনুযায়ী এই ধরনের স্পন্সরের লোকজন ছয় মাস পরে দেশে ফিরে যেতে বাধ্য। এক্ষেত্রে বাংলাদেশ থেকে আসা শ্রমিক প্রবেশ করার পর কেউ আর দেশে ফিরত না। তার জন্য পরবর্তীতে বাংলাদেশকে এই ক্ষেত্র থেকে বাদ দেওয়া হয়।

দীর্ঘদিন পর বহুল আকাঙ্খিত ইতালীর সিজন ভিসা খোলায় বাংলাদেশীদের ইউরোপের আরেকটি দুয়ার খুললো।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!