ওসমানীনগরে পল্লী বিদ্যুতের আরেক কর্মচারী করো'না আ'ক্রান্ত

নিউজ ডেস্ক- বালাগঞ্জ ওসমানীনগর জোনাল অফিস খাশিকাপন পল্লী বিদ্যুতের লাইন টেকনিশিয়ানের সংস্প'র্শে আসায় আরো একজন লাইন টেকনিশিয়ান করো'না আ'ক্রান্ত হয়েছেন। ২২ বছর বয়সী পল্লী বিদ্যুতের লাইন টেকনিশিয়ানের বাড়ি কি'শোরগঞ্জ জে'লায়। তিনি চাকরীর সুবাদে ওসমানীনগর উপজে'লার খাশিকাপন পল্লী বিদ্যুতের অফিসের নিকটবর্তী একটি বাসায় ভাড়াটিয়া হিসেবে থাকেন।

এ নিয়ে ওসমানীনগরে করো'না ভাইসে আ'ক্রান্তের সংখ্যা ৭ জনে দাড়ালো। বৃহস্পতিবার রাতে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতা'লের পিসিআর ল্যাব থেকে উপজে'লা স্বাস্থ্য বিভাগের নিকট পাঠানো ই-মেইল বার্তায় নতুন করে পল্লী বিদ্যুতের আরেক লাইনম্যান করো'না পজেটিভ বলে জানানো হয়।

এর আগে, গত ১৫ মে রাতে সাড়ে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের পিসি আর ল্যাবে ই-মেইলের মাধ্যমে উপজে'লা স্বাস্থ্য কর্মক'র্তাকে জানানো হয় পল্লী বিদ্যুতের লাইন টেকনিশিয়ান করো'না আ'ক্রান্ত। পরে তাজপুর বাজারের মশ্রব আলী কমপেক্স ভাড়াটি লকডাউন করে এবং ঐ দিনই আ'ক্রান্ত টেকনিশিয়ানের স্ত্রী' ও ১১ বছরের ছে'লের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরে বৃহস্পতিবার রাতে জানানো হয় আ'ক্রান্ত টেকনিশিয়ানের ১১ বছরের ছে'লের ও করো'না পজেটিভ। একই দিন আরো একজন পল্লীবিদ্যুত কর্মচারী করো'না আ'ক্রান্ত বলে জানানো হয়।

উপজে'লা করো'না সংক্রান্ত মেডিকেল টিমের প্রধান ডা. সাকিব আব্দুল্লাহ চৌধুরী বলেন, নতুন করে পল্লী বিদ্যুতের আরেকজন লাইনম্যানের করো'না শনাক্ত হয়েছেন। গত ১৫ মে পল্লী বিদ্যুতের লাইন টেকনিশিয়ান তাজপুর বাজারের মশ্রব আলী কমপ্লেক্সের ভাড়াটিয়ার করো'না শনাক্ত হবার পর তার সংস্প'র্শে আসা পল্লী বিদ্যুতের দুজন লাইনম্যানের ১৭ মে নমুনা সংগ্রহ করা হলে এরমধ্যে একজনের পজেটিভ রিপোর্ট আসে বৃহস্পতিবার রাতে।