একই কণ্ঠে ৫ দেশের সুরে ‘আজান’!

নিউজ ডেস্কঃ প্রতিভা এখন আর লুকিয়ে থাকে না। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের কল্যাণে তা ভাইরাল হয়ে পড়ে বিশ্বময়।

তাই অনেকেই কারো কোনো প্রতিভার সন্ধান পেলে তা ভিডিও করে ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম আর ইউটিউবে ছেড়ে দেন।

আর তা দেখে নেটিজেনরা মুগ্ধ হয়। এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হলো আজান।

পাঁচ ওয়াক্তে আম'রা আজান শুনলেও ভাইরাল হওয়া আজানের বিষয়টি ভিন্ন।

এ আজান ভাইরাল হওয়ার কারণ, বিভিন্ন দেশের স্থানীয় সুরে আজান দিয়েছেন এক ব্যক্তি।

ভিডিওতে দেখা গেছে, একটি ঘরোয়া বৈঠক বা মজলিশে আহসান হাবিব নামের এক ব্যক্তির কাছে বিভিন্ন দেশের স্থানীয় সুরে আজান শুনতে চান ভিডিও ধারণকারী।

এরপর আহসান হাবিব এক এক করে ম'সজিদুল হারাম, ম'দিনা, ভারতীয়, মিসরীয়, পাকিস্তানী এবং সবশেষ বাংলাদেশি সুরে আজান দিয়ে শোনান।

‘ভাইরাল নিউজ লাইভ’ নামে একটি ইউটিউব চ্যানেলে প্রথম আপলোড করা হয় এই বিভিন্ন দেশিয় সুরের আজান।

ভিডিওটি কোথায় এবং কবে ধারণ করা হয়েছে সে বিষয়ে জানা যায়নি।

অনেকেই ধারণা করছেন, ওই ইউটিউব চ্যানেলটি ভারতীয়।

এদিকে এত ধরনের সুরে মহান আল্লাহর নামে মানুষকে ডা'কার সেই ভিডিও দেখে মুগ্ধ নেটিজেনরা।

বেশিরভাগ শ্রোতাই ওই ব্যক্তির প্রশংসা করেছেন। মাশাআল্লাহ, সুবহানাল্লাহ আর আমিন লিখে কমেন্ট করেছেন অনেকে।

অনেকেই লিখেছেন, অসাধারণ কিছু দেখলাম।

তবে সেই ব্যক্তির প্রশংসা করে অনেকেই লিখেছেন, আজান যে সুরেই দেয়া হোক; তা সব সময়ই সুমধুর।