সিলেটে আজহারীর পোস্টারে অনুমতি ছাড়া নাম, হতবাক আ’লীগ নেতা কাম'রান

নিউজ ডেস্ক:বিত’র্কিত ইস'লামী বক্তা মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারী ২০ জানুয়ারি সিলেটের জৈন্তাপুরে আসছেন। উপজে'লার দরবস্ত ইউনিয়নের হাজারী সেনগ্রাম সমাজ কল্যাণ পরিষদ আয়োজিত তাফসীরুল কোরআন মাহফিলে বয়ান করার কথা তার।

এই মাহফিলে প্রধান অ'তিথি হিসেবে পোস্টারে নাম দেখা যাচ্ছে সিলেট জে'লা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জে'লা পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফুর রহমানের। একইসাথে বিশেষ অ'তিথি হিসেবে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য বদরউদ্দিন আহম'দ কাম'রানের নাম রয়েছে।

মিজানুর রহমান আজহারী জামায়াতের অনুসারী হিসেবে পরিচিত। আজহারী বিভিন্ন ওয়াজে যু’দ্ধাপরাধের মা'মলায় দ’ণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসেইন সাঈদীর পক্ষেও কথা বলেন বলে জানা গেছে। ওয়াজে বিত’র্কিত ও উ’স্কানিমূলক কথা বলার কারণেও সমালোচিত তিনি। এমন অ'ভিযোগে সাম্প্রতিক সময়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে তার বেশ কয়েকটি ওয়াজ মাহফিল বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন।

এমন একজন বক্তার ওয়াজ মাহফিলে সিলেট আওয়ামী লীগের ২ শীর্ষ নেতার অ'তিথি হওয়া নিয়ে সমালোচনা দেখা দিয়েছে। জৈন্তাপুরের ওই মাহফিলের পোস্টার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এতে মিজানুর রহমান আজহারীর সাথে আওয়ামী লীগ নেতা লুৎফুর রহমান এবং বদরউদ্দিন আহম'দ কাম'রানেরও নাম রয়েছে।

তবে এই আয়োজনের ব্যাপারে কিছুই জানেন না বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য বদরউদ্দিন আহম'দ কাম'রান। তিনি  জানিয়েছেন, আমি এই তাফসীরুল কোরআন মাহফিল স'ম্পর্কে কিছুই জানি না। আর আজহারীকেও চিনি না। আমাকে না জানিয়েই পোস্টারে আমা'র নাম ব্যবহার করা হয়েছে।

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ওই অনুষ্ঠানে আমা'র যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। কারণ আমি ১৮ জানুয়ারি টুঙ্গিপাড়া যাবো। ২০ তারিখে ঢাকা সিটি নির্বাচনের প্রচারণায় থাকবো। অনেক আগে থেকেই আমা'র এই কর্মসূচী নির্ধারিত ছিলো। ফলে জৈন্তাপুরের মাহফিলে অ'তিথি হওয়ার সম্মতি আমি কী'ভাবে দেবো?

এ ব্যাপারে জে'লা আওয়ামী লীগের সভাপতি লুৎফুর রহমানের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।