প্রা'ণী বাঁ'চাতে হেলিকপ্টারে খাবার ফেলছে অস্ট্রেলিয়া

অস্ট্রেলিয়ার দাবানলে পুড়ে যাওয়া জঙ্গলে যেসব প্রা'ণী এখনও বেঁচে রয়েছে তাদের জন্য এবার খাবারের ব্যবস্থা করছে প্রশাসন। আকাশ থেকে তাদের জন্য খাবার ফেলা হচ্ছে হেলিকপ্টার থেকে। এমনই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর নেটিজেনরা এই উদ্যোগের প্রশংসা করছেন। সোমবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে দ্য সান।

সংবাদমাধ্যম ‘নাইন নিউজ সিডনি’ তাদের টুইটার হ্যান্ডলে একটি ভিডিও পোস্ট করেছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, একটি হেলিকপ্টারে প্রচুর গাজর তোলা হচ্ছে। তারপর সেই গাজর জঙ্গলের উপর গিয়ে ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। ভিডিওতে কয়েকটি স্টিল ছবিও প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, একটি ছোট ক্যাঙ্গারু সেই গাজর খাচ্ছে। সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল জানিয়েছে, সরকার এখন পর্যন্ত প্রায় ২২০০ কেজি সবজি পৌঁছে দিয়েছে এভাবে। এই সবজির মধ্যে গাজর ছাড়াও রয়েছে মিষ্টি আলু। এগুলো ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে, ক্যাপারট্রি এবং উলগান উপত্যকায়। এছাড়াও ইয়েঙ্গো ন্যাশনাল পার্ক, দ্য ক্যাঙ্গারু ভ্যালিসহ দাবানল আক্রান্ত বিভিন্ন এলাকায়।

দেশটির পরিবেশমন্ত্রী ম্যাট কেন ডেইলি মেইলকে জানিয়েছেন, আ'গুনে এই পশুর সব খাবার পুড়ে গেছে। তাই জঙ্গলের মধ্যে যে পশু রয়েছে তাদের জন্য এই খাবারের বন্দোবস্ত করা হয়েছে। বিষয়টির উপর তারা নজরও রাখছেন। সরকারের এ উদ্যোগ প্রচুর প্রশংসা পেয়েছে। তবে অনেকেই আবার আশ'ঙ্কার কথা শুনিয়েছেন। তাদের মতে এই আলু, গাজর যদি সরাসরি কোনো পশুর মা'থায় পড়ে তবে তারা চোটও পেতে পারে। সে দিকটিও ভেবে দেখা দরকার সরকারের। গত সেপ্টেম্বর থেকে অস্ট্রেলিয়া যে দাবানলে পুড়ছে, এই ভ'য়াবহতা অস্ট্রেলিয়ার জন্য নতুন। এই আ'গুনে কত যে প্রা'ণী মা'রা গেছে তার সঠিক সংখ্যা জানা না গেলেও সে সংখ্যা যে কয়েক কোটি পর্যন্ত হয়ে যেতে পারে সে ইঙ্গিত ইতিমধ্যে পাওয়া গেছে। কেবল আ'গুন থেকে বেঁচে যাওয়াটাই বনের প্রা'ণীদের জন্য যু'দ্ধ শেষ হয়ে যাওয়া নয়। আ'গুন থেকে বাঁ'চার পর শুরু হয় তাদের খাবারের জন্য ল'ড়াই। কারণ এমন অনেক তৃণভোজী প্রা'ণী আছে যাদের খাবারের পুরোটা পুড়েছে আ'গুনে। দেখা যাচ্ছে, অনেক অংশে আ'গুন নেভার পর খাওয়ার কিছু পাচ্ছে না সেখানকার প্রা'ণীরা। এরকম বিপদে থাকা প্রা'ণীদের মধ্যে অন্যতম হল ওয়ালিবিজ (ছোট এক ধরনের ক্যাঙ্গারু)।