স্ত্রী'কে কু‌‌'পিয়ে হ'ত্যার পর প্রবাসী স্বামীর আত্মহ'ত্যা

নিউজ ডেস্কঃ রংপুরের পীরগাছায় এনজিও কর্মী স্ত্রী'কে কু‌‌'পিয়ে হ'ত্যা করে গলায় ফাঁ'স দিয়ে আত্মহ'ত্যা করেছেন স্বামী। সোমবার (১১ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজে'লার কৈকুড়ী ইউনিয়নের চৌধুরাণী বাজারে ব্র্যাকের শাখা অফিসে এ ঘটনা ঘটে।

খু'ন হওয়া ওই এনজিও কর্মী হলেন, তাসলিমা আক্তার লুনি (২৫)। তিনি উপজে'লার কৈকুড়ী ইউনিয়নের সুবিদ গ্রামের তোজাম্মেল হকের মে'য়ে। ব্র্যাকের চৌধুরাণী শাখার হিসাব রক্ষক ছিলেন তিনি।

আর গলায় ফাঁ'স দিয়ে আত্মহ'ত্যা করা আব্দুল্লাহ আল মাসুদ স্বপন, গাইবান্ধা সদর উপজে'লার বল্লমঝাড় ইউনিয়নের রঘুনাথ গ্রামের শামছুল আলম মাস্টারের ছে'লে।

স্থানীয় লোকজন জানান, স্বপন প্রায় তিন বছর প্রবাসে ছিলেন। এ সময়ে তার আয়ের সম্পূর্ণ অর্থ স্ত্রী' রুনির অ্যাকাউন্টে পাঠান। গত চার মাস আগে স্বপন বাড়িতে ফিরে আসলে পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে স্বামী-স্ত্রী'র মাঝে বিরোধ সৃষ্টি হয়।

এরই জের ধরে স্বপন সোমবার সকালে পূর্ব পরিক'ল্পিতভাবে চাইনিজ কুড়ালসহ রুনির কর্মস্থল ব্র্যাক অফিসে উপস্থিত হয়। এসময় ওই অফিসের অন্যান্য কর্মীরা মাঠে ছিলেন। অফিস ফাঁকা থাকায় রুনির ওপর চাইনিজ কুড়াল দিয়ে হা'মলা চালায় স্বপন। রুনির মৃ'ত্যু নিশ্চিত ভেবে স্বপন ওই অফিসেই গলায় ফাঁ'স দিয়ে আত্মহ'ত্যা করে।

পরে সকাল সাড়ে ১১টার দিকে এক সহকর্মী অফিসে ফিরে ঘটনাটি দেখতে পেয়ে চি'ৎকার শুরু করেন। চি'ৎকার শুনে আশেপাশের লোকজন ছুটে এসে রুনিকে উ'দ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে পথিমধ্যেই তার মৃ'ত্যু হয়।

পীরগাছা থা'নার ওসি রেজাউল করিম বলেন, চৌধুরাণী বাজারে ব্র্যাকের শাখা অফিস থেকে স্বপন নামে একজনের ঝুলন্ত লা'শ উ'দ্ধার করা হয়েছে। আর রুনির লা'শ রংপুর মেডিকেলে রয়েছে। লা'শ দুটির ময়নাত'দন্ত করা হবে।