প্রা'ণভিক্ষা চেয়ে আলজেরিয়া থেকে ২২ বাংলাদেশির ভিডিওবার্তা

ভাগ্য বদলা‌তে বিদেশে গিয়েছিলেন মুন্সিগ‌ঞ্জ জে'লার সুমন, দেলওয়ার, মহ‌সিন, হেলাল ও আলমগীর। রিক্রু‌টিং এজে‌ন্সি তা‌দের আল‌জে‌রিয়া পাঠায়। স্বপ্ন দেখায়, প্র‌তি মা‌সে ৪০-৫০ হাজার টাকা বেতন। আলজেরিয়া থেকে ম'রক্কো হয়ে স্পেন যেতে পারবে। কিন্তু বাস্তবতা ভিন্ন। আলজে‌রিয়ায় আ'ট'কা প‌ড়ে তারা মানবেতর জীবনযাপন কর‌ছেন। দে‌শে ফেরার জন্য তার‌া আকুল আবেদন জা‌নি‌য়ে‌ছেন।

প‌রিবারগু‌লোর আবেদ‌নের প্রে‌ক্ষি‌তে তা‌দের উ'দ্ধারের জন্য ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডে আবেদন জানিয়েছে ব্র্যাক। বোর্ড থেকে এ ব্যাপারে দূতাবাসকে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য চিঠি দেয়া হয়েছে।

আলজেরিয়ায় আ’ট‌কে পড়া প্রবাসী ও তা‌দের স্বজনরা জা‌নি‌য়ে‌ছেন, উচ্চ বেতন, ভালো কাজের সম্ভাবনা আর সহ'জ পথে স্পেন প্রবেশের রঙ্গিন স্বপ্ন দেখিয়ে পাঠানো হচ্ছে বাংলাদেশি যুবকদের। স্বপ্ন দেখানোর জন্য নেওয়া হচ্ছে নানা কৌশল, অফিসগুলোতে রাখা হয়েছে বিশ্ব মানচিত্র, দেখানো হচ্ছে আলজেরিয়া থেকে ম'রক্কো আর ম'রক্কো থেকে স্পেনের দূরত্ব।

অ'ভিযোগ উঠেছে, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষন ব্যুরোর ছাড়পত্র নিয়েই কর্মী প্রেরণ করছে কিছু রিক্রুটিং এজেন্সি। কিন্তু সেখানে গি‌য়ে তারা প্রতা‌রিত হ‌চ্ছেন। সম্প্র‌তি আলজেরিয়া থেকে দেশে ফিরেছেন নয় বাং‌লা‌দে‌শি। স্পেনের উদ্দেশ্যে ম'রক্কোতে অবস্থান করছেন চারজন। আর আলজেরিয়াতে অবস্থা করছেন ৪২ বাংলাদেশি।

আল‌জে‌রিয়া থেকে ফেরত আসা কর্মী মোহাম্ম'দ ফারুক জানান, চলতি বছরের ফেব্রুয়া‌রি মাসে জনপ্রতি তিন লাখ টাকা নিয়ে জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষন ব্যুরোর ছাড়পত্র দিয়ে মু‌ন্সিগঞ্জ ও আশপা‌শের এলাকার ৫৬ জন বাংলাদেশিকে আলজেরিয়াতে পাঠায় রিক্রুটিং এজেন্সি ব'ন্যা বিজয় ওভারাসিজ লি. (আর.এল-১৩১৪) ও সিঙ্গাপুর স্কিল ট্রেনিং সেন্টার। আলজেরিয়া যাওয়ার আগেই সিঙ্গাপুর ট্রেনিং সেন্টার থেকে কর্মীদের বলা হয়, ভালো না লাগলে কয়েকদিন কাজ করে চাইলে স্পেন চলে যেতে পারবেন। কিন্তু আলজেরিয়াতে গিয়ে কাজ করালেও ঠিতমতো বেতন পান‌নি। বেতন চাইলে মা'রধর করা হ‌তো।

আলজে‌রিয়ায় আ’ট‌কে পড়া ও ফেরত আসারা জা‌নি‌য়ে‌ছেন, এ বিষয়ে রিক্রুটিং এজেন্সি ও সিঙ্গাপুর স্কিল ট্রেনিং সেন্টারের সাথে যোগাযোগ করলে এজেন্সি বলে বিদেশ পাঠানোর কথা আম'রা পাঠিয়েছি। এখন সেখানে সমস্যা থাকলে কী' করবো?

সিঙ্গাপুর ট্রেনিং সেন্টারে যোগা‌যোগ কর‌লে তারা বলেন, আলজেরিয়াতে তা‌দের লোক আছে। তারা স্পেন লোক পাঠায়। আপনারা তাদের সাথে যোগাযোগ করে স্পেন চলে যেতে পারেন। এসব কথা শোনার পর তাদের সাথে থাকা চারজন কর্মী আক্তার মিয়া, ইব্রাহিম, রিপোন মোল্লা ও উজ্জল স্পেন যাবার উদ্দেশ্যে আলজেরিয়া থে‌কে ম'রক্কো গেছে এবং ম'রক্কো গিয়ে তারাও অনেক বিপদের মধ্যে আছেন।

ফ‌ারুক জানান, পরি‌স্থি‌তি খার‌াপ হওয়ায় তি‌নিসহ নয়জন দে‌শে চ‌লে আস‌তে বাধ্য হ‌য়ে‌ছেন। এরা হ‌লেন, জসিম, মুহিন আহাম্মেদ, শামীম শেখ, হৃদয় শেখ, রমা সুমন, রুবেল, ইসমাইল ও আল আমিন। তারা জানান, জীবন বাঁ'চানোর তাগিদে পরিবার থেকে টাকা নিয়ে নিজ থেকে বিমান টিকিট কে'টে শূন্য হাতে দেশে ফিরে আসেন। দেশে ফেরত আসার পর কর্মীরা রিক্রুটিং এজেন্সি ব'ন্যা বিজয় ওভারাসিজ লি. ও সিঙ্গাপুর স্কিল ট্রেনিং সেন্টারের সাথে যোগাযোগ করলে প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে কর্মীদেরকে হুমকি ‌দেয়া হ‌চ্ছে।

ব্র্যাক অ'ভিবাসন কর্মসূচির প্রধান শরিফুল হাসান ব‌লেন, আলজেরিয়াতে আট‌কে পড়া সাতজ‌নের প‌রিবার আমা‌দের কা‌ছে সহ‌যো‌গিতা চে‌য়ে‌ছেন। তাদের নিরাপদে দ্রুত দেশে ফেরত আনতে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় ও ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডে গত ৯ অক্টোরর আম'রা লিখিতভাবে আবেদন ক‌রে‌ছি। বোর্ড থেকে চি‌ঠি দেওয়া হ‌য়ে‌ছে সেখানকার বাংলা‌দেশ দূতাবা‌সে।

আশা করছি সেখানকার দূতাবাস থেকে সরকারকে এ ব্যাপারে করণীয় জানানো হবে। ঘটনা শুনে আমা‌দের ম‌নে হ‌চ্ছে, স্পেনের স্বপ্ন দেখিয়ে তাদের পাঠানো হচ্ছে। বিষয়টা উদ্বেগজনক। দ্রুত এই ধরনের প্রতারণা বন্ধ করতে না পারলে আরো অনেককে বিপদে পড়তে হবে। দেশের ভাবমুর্তিও ক্ষুণ্ণ হবে।
ভিডিওবার্তা….
সূত্র: কালের কণ্ঠ