দৃষ্টিহীন দুই শিক্ষক মিলে ছা'ত্রীকে পালাক্রমে ধ'র্ষণ!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: ১৫ বছরের এক দৃষ্টিহীন ছা'ত্রীকে ধ'র্ষণ করেছে দুই দৃষ্টিহীন শিক্ষক। এই অ'ভিযোগ উঠেছে ভারতের গুজরাতের বনাসকাঁঠা জে'লার অম্বাজি শহরে। বেসরকারি ট্রাস্ট পরিচালিত সেই স্কুলের দৃষ্টিহীন দুই শিক্ষক ওই ছা'ত্রীকে একাধিকবার নি'র্যাতন করেছে বলে অ'ভিযোগ।

নির্যাতিত ওই ছা'ত্রীর বাড়ি পতন জে'লার প্রে'মনগর গ্রামে। সেখানেই অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করেছে সে। এ বছর জুলাই মাসে বিশেষ ভাবে সক্ষম'দের জন্য সেই স্কুলে গান শেখার জন্য ভর্তি হয়। সেই স্কুলের হোস্টেলে থাকত সে। দিপাবলির ছুটিতে গত মাসে প্রে'মনগরে ফিরেছিল। তখনই শিক্ষকদের হাতে যৌ'ন নি'র্যাতনের কথা জানায় কাকিমাকে।

তার পর ৪ নভেম্বর ওই দুই দৃষ্টিহীন শিক্ষকের বি'রুদ্ধে থা'নায় অ'ভিযোগ জানান নির্যাতিতা ছা'ত্রীর কাকিমা।

পু'লিশের কাছে দায়ের করা অ'ভিযোগ অনুসারে, অ'ভিযুক্ত ওই শিক্ষকরা হলেন চ'মন ঠাকুর (৬২) ও জয়ন্তী ঠাকুর (৩০)। পু'লিশ জানিয়েছে, মাস দুয়েক আগে ৬২ বছরের চ'মন মিউজিক রুমে ছা'ত্রীকে প্রথমবার ধ'র্ষণ করেন। তার তিন দিন পর ওই একই ঘরে তার উপর অ'ত্যাচার চালায় জয়ন্তী। এ ভাবে বেশ কয়েকবার নি'র্যাতনের শিকার হয় ওই ছা'ত্রী।

ঘটনার বিষয়ে অম্বাজির পু'লিশ ইনস্পেক্টর জেবি অগ্রয়াত বলেছেন, আম'রা বিষয়টি নিয়ে ত'দন্ত শুরু করেছি। অ'ভিযুক্ত ওই দুই শিক্ষক পলাতক। তাঁদের খোঁজ চালানো হচ্ছে। এই ঘটনা সামনে আসার পর দুই শিক্ষককে বরখাস্ত করেছেন ওই বেসরকারি স্কুল কর্তৃপক্ষ।