বড়লেখায় চাঞ্চল্যকর নারী আইনজীবী হ'ত্যা, ৩ জনের বি'রুদ্ধে অ'ভিযোগপত্র

বড়লেখা (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি-মৌলভীবাজারের বড়লেখায় চাঞ্চল্যকর মহিলা আইনজীবী আবিদা সুলতানা হ'ত্যা মা'মলার কারাগারে থাকা ২ আ'সামিসহ ৩ জনের বি'রুদ্ধে আ'দালতে অ'ভিযোগপত্র দাখিল করেছে পু'লিশ।

শুক্রবার বিকালে এ মা'মলার ত'দন্ত কর্মক'র্তা বড়লেখা থা'নার পরিদর্শক (ত'দন্ত) মো. জসীম অ'ভিযোগপত্র দাখিলের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অ'ভিযুক্তরা হলেন নি'হত আইনজীবী আবিদা সুলতানার পারিবারিক ম'সজিদের ই'মাম তানভীর আলম (৩৪)। তার ছোটভাই আফছার আলম (৩০) এবং স্ত্রী' হালিমা সাদিয়া (২৮)।

জানা গেছে, গত ২৬ মে বেলা ১১টা থেকে রাত ৮টার মধ্যের যে কোনো সময় বড়লেখার মাধবগুল গ্রামে পৈত্রিক বাসায় নি'র্মমভাবে খু'ন হন মৌলভীবাজার জে'লা আইনজীবী সমিতির সদস্য ও জজকোর্টের আইনজীবী আবিদা সুলতানা। তিনি উপজে'লার কাঠাঁলতলী মাধবগুল গ্রামের মৃ'ত আবদুল কাইয়ুমের বড় মে'য়ে।

হ'ত্যাকা'ণ্ডের পরই ওই বাসার অ'পরাংশের ভাড়াটিয়া ও তাদের পারিবারিক ম'সজিদের ই'মাম তানভীর আলম (৩৪) বাসায় তালা ঝুলিয়ে স্ত্রী' ও মাকে শ্বশুরবাড়ি পাঠিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। পরদিন স'ন্দেহভাজন খু'নি হিসেবে শ্রীমঙ্গল থেকে পু'লিশ তাকে আ'ট'ক করে। এর আগে পু'লিশ তার স্ত্রী' হালিমা সাদিয়া (২৮) ও মা নেহার বেগমকে (৫৫) আ'ট'ক করেছিল।

আইনজীবী আবিদা সুলতানা খু'নের ঘটনায় তার স্বামী মো. শরিফুল ইস'লাম বসুমিয়া ম'সজিদের ই'মাম তানভীর আলম, তার ছোটভাই আফছার আলম, স্ত্রী' হালিমা সাদিয়া (২৮) ও মা নেহার বেগমকে (৫৫) আ'সামি করে থা'নায় হ'ত্যা মা'মলা দায়ের করেন।

মা'মলার ত'দন্ত কর্মক'র্তা পু'লিশ পরিদর্শক (ত'দন্ত) মো. জসীম জানান, অ্যাডভোকেট আবিদা সুলতানা হ'ত্যা মা'মলা'টির ত'দন্ত সম্পন্ন করেছেন। বুধবার ৩ আ'সামির বি'রুদ্ধে আ'দালতে অ'ভিযোগপত্র জমা দিয়েছেন। অ'ভিযুক্ত ৩ আ'সামির ২ জন কারাগারে এবং অ'পর আ'সামি আফছার আলম পলাতক।