যাত্রীকে ককপিটে ছবি তুলতে দেয়ায় আজীবন নিষিদ্ধ হলেন পাইলট

নারী যাত্রীকে ককপিটে ছবি তুলতে দেয়ায় চীনের একজন পাইলট আজীবন নিষিদ্ধ হয়েছেন। তবে তিনি চীনা বিমান সংস্থা এয়ার গিলিনে কাজ করতেন। তার নাম জানানো হয়নি।

৪ জানুয়ারি জিটি১০১১ ফ্লাইটে ছবিটি তোলা হয়। চীনের গিলিন শহর থেকে ইয়াঙজাওতে যাচ্ছিল উড়োজাহাজটি। তখনই ককপিটে বসে ওই যাত্রী ছবি তুলতে চাইলে পাইলট ছবি তোলার সুযোগ দেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই যাত্রীর একটি পোস্টের স্ক্রিনশট ব্যাপকভাবে শেয়ার হওয়ার কারণে ৩ নভেম্বর এয়ার গিলিনের নজরে আসে বিষয়টি। ক্যাপশনে ওই যাত্রী লিখেছেন, ‘ক্যাপ্টেনকে ধন্যবাদ। খুব ভালো লাগছে।’

চাইনিজ নিউজ সার্ভিস ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, গিলিন ইউনিভার্সিটিতে ফ্লাইট অ্যাটেনডেন্ট হওয়ার প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন ওই নারী।

এয়ার গিলিন এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, বিমান নিরাপত্তা নিয়ম লঙ্ঘন করেছেন পাইলট। যদিও বৈমানিক হিসেবে চিরকালের নিষেধাজ্ঞা পাওয়ার পাশাপাশি তিনি সব পদ থেকে অ'পসারিত হয়েছেন কিনা তা নিশ্চিত নয়।

বিমান সংস্থাটি আরও বলেছে, ‘যাত্রীদের সুরক্ষাকে সবসময় প্রাধান্য দেয় এয়ার গিলিন। এভিয়েশনের নিরাপত্তা ঝুঁ'কিপূর্ণ হতে পারে এমন কোনও অনুপযুক্ত ও অ'পেশাদার আচরণের বি'রুদ্ধে আম'রা জিরো-টলারেন্স নীতিতে চলি।’

গত বছর স্ত্রী'কে ককপিটে ঢুকতে দেয়ায় একজন পাইলট'কে ছয় মাসের জন্য সাসপেন্ড করেছিল চীনা বিমান সংস্থা ডঙহাই এয়ারলাইনস। একইসঙ্গে ফ্লাইটের প্রশিক্ষণ দেয়ার যোগ্যতা বাতিল করা হয় তার।

খবর: বিবিসির