সুনামগঞ্জে ডা'কাতিকালে প্রবাসীর স্ত্রী'কে ধ'র্ষণের চেষ্টা, আ'ট'ক ১

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজে'লার মিরপুর ইউনিয়নের শ্রীরামসীর গ্রামের শেষ সীমান্তবর্তী বিশ্বনাথ উপজে'লার চাংভরা মৌজার বল্লবপুর গ্রামে সৌদি প্রবাসীর বাড়িতে ডা'কাতির ঘটনা ঘটেছে বলে অ'ভিযোগ পাওয়া গেছে। ডা'কাতি কালে প্রবাসীর স্ত্রী'কে ধ'র্ষণের চেষ্টা করা হয়। এ ঘটনায় পু'লিশ বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) একজনকে আ'ট'ক করেছে।

পু'লিশ ও স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, শ্রীরামসী গ্রামের বাসিন্দা সৌদি প্রবাসী আব্দুল কাদির প্রায় তিন বছর পূর্বে শ্রীরামসী গ্রামের শেষ সীমান্ত এলাকা বিশ্বনাথের বল্লবপুরে বসতবাড়ি নির্মাণ করেন। সেখানে প্রবাসীর স্ত্রী' সন্তানরা বসবাস করে আসছেন।

বুধবার (৬ নভেম্বর) দিবাগত গভীর রাতে প্রবাসীর বাড়িতে একদল মুখোশধারী ডা'কাত বসতঘরের দরজা ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে লোকজনকে বেঁধে নগদ অর্থ, স্বর্নালংস্কারসহ প্রায় চার লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে। ডা'কাতি কালে প্রবাসীর স্ত্রী'কে ধ'র্ষণের চেষ্টা করা হয় বলে অ'ভিযোগ পাওয়া গেছে। খবর পেয়ে জগন্নাথপুর থা'না পু'লিশ ঘটনাস্থল পরির্দশন করে আমির হামজা (২৮)কে আ'ট'ক করে। আ'ট'ককৃত ব্যক্তি ময়মনসিংহ জে'লার নানদাইল থা'নার বৈঠাকালি গ্রামের আব্দুস সালামের ছে'লে। সে দীর্ঘদিন ধরে শ্রীরামসী গ্রামে বসবাস করে আসছিল।

শ্রীরামসী গ্রামের বাসিন্দা স্থানীয় ওয়ার্ডের নব নির্বাচিত মেম্বার মাহবুব হোসেন জানান, খবর পেয়ে প্রবাসীর বাড়িতে গিয়ে জানতে পারি ডা'কাতির ঘটনা ঘটেছে। তিনি প্রবাসীর স্ত্রী'র উদ্ধৃতি দিয়ে জানান, রাত তিনটার দিকে মুখোজধারী আট জনের একদল অ'স্ত্রধারী ডা'কাত ঘরের

দরজা ভেঙে ঘরে ভেতর ঢুকে প্রবাসীর স্ত্রী'র সন্তানদের বেঁধে ঘরে থাকা ৪০ হাজার টাকা, সাড়ে চার ভরি স্বর্ণালংকার, মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে গেছে। বিষয়টি পু'লিশকে জানালে বৃহস্পতিবার আমির হামজা নামে এক ব্যক্তিকে আ'ট'ক করেছে। ডা'কাতি কালে প্রবাসীর স্ত্রী'কে ধ'র্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে।

তিনি জানান, প্রবাসী আব্দুল কাদির মূলত শ্রীরামসী গ্রামের ছিলেন।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী জগন্নাথপুর থা'নার এসআই লুৎফুর রহমান জানান, ঘটনাটি বিশ্বনাথ এলাকায় ঘটেছে। ডা'কাতির ঘটনায় জড়িত স'ন্দেহভাজন আ'ট'ককৃত কে বিশ্বনাথ থা'নায় হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।