মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্ম'দ এর সাথে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইম'রান আহম'দ এর বৈঠক

আমির উদ্দিন, মালয়েশিয়া :বাংলাদেশ সরকারের প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইম'রান আহম'দ এমপি আজ ৭ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী তুন ড. মাহাথির মোহাম্ম'দের সঙ্গে তার সরকারি বাসভবনে এক বৈঠকে মিলিত হন। সাক্ষাতকালে বাংলাদেশের মন্ত্রী মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশের স্থগিত থাকা শ্রমবাজার দ্রুত খুলে দেয়া এবং সেদেশে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশীদের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে আলোচনা করেন। সাক্ষাতকারের সময় মন্ত্রীর সঙ্গে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ সেলিম রেজা উপস্থিত ছিলেন।

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদল ৬ নভেম্বর কুয়ালামাপুরে পার্লামেন্টভবনে মালয়েশিয়ার মানব সম্পদ বিষয়ক মন্ত্রী এম. কুলাসেগারানের নেতৃত্বে সে দেশের প্রতিনিধিদের সঙ্গে শ্রম অ'ভিবাসন বিষয়ে দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় মিলিত হন।

প্রবাসীকল্যাণমন্ত্রীর চেষ্টায় শ্রমবাজারটিতে সফলতার মুখ দেখতে চলেছে বাংলাদেশিরা।জানা গেছে, চলতি বছরের ডিসেম্বরেই দেশটিতে কর্মী পাঠাতে আগ্রহী বাংলাদেশ। এর অংশ হিসেবে ২৪ বা ২৫ নভেম্বর ঢাকায় আসছে মালয়েশিয়ার একটি প্রতিনিধি দল। ওই সময় নিরাপদে অ'ভিবাসন নিশ্চিত করতে আরও কিছু দিকনির্দেশনা দেয়া হতে পারে বলে জানা গেছে। আলোচনায় শ্রমিক নেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে। উভ'য় দেশের মন্ত্রী নিরাপদে অ'ভিবাসন নিশ্চিত করতে বাংলাদেশি শ্রমিকদের নিয়োগ, কর্মসংস্থান ও প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়াকে মানসম্মত করার প্রয়োজনীয়তার উপর জো'র দিয়েছেন। এ ছাড়াও অ'বৈধ নিয়োগের অ'পচেষ্টা রোধে কঠোর অবস্থানের কথা জানিয়েছে।

বৈঠকে যেসব বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে : উভ'য় দেশের যৌথ এবং সমন্বিত প্রচেষ্টায় অ'ভিবাসন ব্যয়কে একটি গ্রহণযোগ্য সীমাতে কমানোর উপর জো'র প্রদান করা হয়।উভ'য় সরকার, মালয়েশিয়ার নিয়োগ সংস্থা এবং বাংলাদেশ নিয়োগ সংস্থার অংশগ্রহণ জ'ড়িত এমন একটি প্রক্রিয়া বাস্তবায়ন। বাংলাদেশ নিয়োগ এজেন্সিগুলোর প্রতিযোগিতামূলক বাজার এবং অ'ভিবাসন ব্যয় কম রাখতে উৎসাহিত করবে কিন্তু সক্ষমতা, নির্ভরযোগ্যতা এবং দক্ষতার মানদ'ন্ড বজায় রাখবে;সমস্ত ব্যবসায়িক প্রক্রিয়াগুলোকে অন্তর্ভুক্ত করে সুরক্ষিত, সর্বজনীন এবং একী'ভূত অনলাইন সিস্টেম চালু করা যা উভ'য় সরকারের স্বচ্ছতা, দক্ষতা এবং কার্যকারিতা নিশ্চিত করতে সহায়তা করবে।

গত বছরের ১ সেপ্টেম্বর থেকে মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানোর অনলাইন পদ্ধতি এসপিপিএ বন্ধ হয়ে যায়। সে সময় তৎকালীন প্রবাসী ও বৈদেশিক কল্যাণমন্ত্রীনুরুল ইস'লাম বিএসসি মালয়েশিয়া গিয়ে বৈঠক করলেও (২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮) শ্রমবাজার চালু করা সম্ভব হয়নি। এরপর ৩১ অক্টোবর ঢাকায় দুই দেশের যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেই বৈঠকে নতুন করে কর্মী নেয়ার কিছু পদ্ধতি ঠিক হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজা, অ'তিরিক্ত সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, যুগ্ম-সচিব ফজলুল করিম, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক মো. আজিজুর রহমান, বিএমইটির পরিচালক মো. নুরুল ইস'লাম, হাইকমিশনার মহ. শহীদুল ইস'লাম, ডেপুটি হাইকমিশনার ওয়াহিদা আহমেদ এবং কাউন্সিলর (শ্রম) মোহাম্ম'দ জহিরুল ইস'লাম। এর আগে ৫ নভেম্বর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তানশ্রী মহিউদ্দীন ইয়াসিনের সঙ্গে সাক্ষাত করেন প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী।সৌজন্য সাক্ষাতে প্রধানমন্ত্রী তুন ড. মাহাথির মোহাম্ম'দ সম্ভব কম সময়ে সিন্ডিকেটমুক্ত বাংলাদেশের জন্য শ্রম বাজার উন্মুক্তকরণ বিষয়ে তার আশাবাদ পুনর্ব্যক্ত করেন।