গোয়াইনঘাটে শি'শু ধ'র্ষণ, ধ'র্ষক আ'ট'ক

কে.এম.লিমন-সিলেটের গোয়াইনঘাটে ছয় বছরের এক শি'শুকে ধ'র্ষনের দায়ে লম্পট ধ'র্ষককে আ'ট'ক করেছে থা'না পু'লিশ।

আ'ট'ক ধ'র্ষকের নাম লিটন তালুকদার (৪০)। সে উপজে'লার শান্তি নগর গ্রামের একাব্বর তালুকদারের ছে'লে।

বুধবার দুপুরে তামাবিল সীমান্ত দিয়ে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় থা'না পু'লিশ সদস্যরা তাকে আ'ট'ক করেন।

স্থানীয় ও পু'লিশ সূত্রে জানা যায়, লম্পট লিটন বেশ কয়েকদিন ধরে আসামপাড়া হাওর গ্রামে সারি নদীর পাড় সংলগ্ন তার ফুফাতো ভাইয়ের বাড়িতে থেকে দিন মজুরের কাজ করতো। সেই সুবাধে পাশর্^বর্তী বাড়ির দরিদ্র পরিবারের ছয় বছরের এক শি'শু কন্যাকে গত মঙ্গলবার বিকেলে তার বাবা মায়ের অবর্তমানে চকোলেটের লো'ভ দেখিয়ে বিলের পাশে নিয়ে ধ'র্ষন করে। এমনকি এ ঘটনা কাউকে না বলার জন্য শি'শুটিকে নানা ভ'য়ভীতি দেখিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। পরে শি'শুটি বাড়িতে গিয়ে ভ'য়ে প্রথমে ঘটনাটি কাউকে না বললেও সন্ধ্যায় যখন সে অ'সুস্থ হয়ে পড়ে তখন তার মায়ের কাছে সব ঘটনা খুলে বলে।

শি'শুটির শারীরিক অবস্থা বেশি খা'রাপ হওয়ায় রাতেই তার বাবা তাকে চিকিৎসার জন্য গোয়াইনঘাট উপজে'লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। শি'শুটির অ'সুস্থতার বিষয়টি জানাজানি হলে ধ'র্ষক লিটন রাতেই গা ঢাকা দেয়।

এ ঘটনায় ধ'র্ষনের স্বীকার ওই শি'শুর বাবা বাদী হয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার ধ'র্ষক লিটনের বিরোদ্ধে গোয়াইনঘাট থা'নায় একটি মা'মলা দায়ের করেন। গতকাল দুপুরে তামাবিল সীমান্ত দিয়ে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় ইউপি সদস্যের সহায়তায় থা'না পু'লিশ অ'ভিযান চালিয়ে লিটনকে আ'ট'ক করেন।
থা'নার ওসি মো. আব্দুল আহাদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন এ ঘটনায় লম্পট লিটন তালুকদারকে আ'ট'ক করা হয়েছে। একই সাথে ধ'র্ষনের স্বীকার শি'শুটি বর্তমানে পু'লিশের তত্বাবধানে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।