কুলাউড়ায় একদিনে দুই লা'শ উ'দ্ধার

নিউজ ডেস্কঃ মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় একই দিনে নবজাতকের মৃ'তদেহ এবং রুহুল ইস'লাম কাশেম (২৬) নামে এক যুবকের ঝুলন্ত লা'শ উ'দ্ধার করেছে পু'লিশ। মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) সকাল ১০টার দিকে পৌরশহররে উছলাপাড়া এলাকা থেকে পলিথিনে মোড়ানো নবজাতকের মৃ'তদেহটি উ'দ্ধার করা হয়।

একই দিন বিকেল ৩টার দিকে উপজে'লার ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নের দক্ষিণ হিঙ্গাজিয়ায় ঘর থেকে ইরফান আলীর পুত্র রুহুল ইস'লামের ঝুলন্ত লা'শ উ'দ্ধার করা হয়।

স্থানীয় ও পু'লিশ সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল ৭টায় পৌর শহরের নবীনচন্দ্র মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে পূর্ব দিকে সড়কের পাশে পলিথিনে মোড়ানো একটি নবজাতকের লা'শ দেখতে পান স্থানীয়রা বিষয়টি পু'লিশকে জানান। খবর পেয়ে থা'নার এস আই হারুন আল রশীদ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই নবজাতকটির মৃ'তদেহ উ'দ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল ম'র্গে প্রেরণ করেন। স্থানীয়দের দাবি অ'বৈধ গর্ভপাতের পর রাতের আধারে কেউ পলিথিনে ভরে নবজাতকটির লা'শ ফেলে যায়।

এদিকে উপজে'লার দক্ষিণ হিঙ্গাজিয়ার সোমবার রাতে রুহুল ইস'লাম কাশেম খাওয়া দাওয়া শেষে নিজ ঘরে ঘুমাতে যান। মঙ্গলবার সকালে রুহুলের ছোট ভাই দরজায় গিয়ে ডা'কাডাকি করে তার কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে ঘরের ভেন্টিলেটর দিয়ে দেখতে পান রুহুল গলায় ফাঁ'স দেয়াবস্থায় ঝুলে আছে। পরে কুলাউড়া থা'না পু'লিশকে খবর দিলে এস আই হারুন আল রশীদ ঘটনাস্থলে গিয়ে রুহুলের মৃ'তদেহ সুরতাহাল শেষে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল ম'র্গে প্রেরণ করেন। রুহুল ৬ মাস আগে বিয়ে করেন। বিবাহিত হলেও তার স্ত্রী' শশুড় বাড়িতে থাকেন। এজন্য পারিবারিক কলহের জেরে হয়ত রুহুল গলায় ফাঁ'স দিয়ে আত্মহ'ত্যা করেছের এমন ধারণা স্থানীয়দের।

এস আই হারুন আল রশীদ বলেন, নবজাতক এবং রুহুলের লা'শ ময়নাত'দন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল ম'র্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

সূত্রঃ সুরমা নিউজ