ইউরোপের স্বপ্নে স্লো'ভাকিয়ার জঙ্গলে নি'হত বিশ্বনাথের ফরিদের লা'শ দেশে আসছে আজ

টাইমস ডেস্কঃ ইউক্রেন থেকে ফ্রান্স যাওয়ার পথে স্লো'ভাকিয়ায় নি'হত সিলেটের বিশ্বনাথ উপজে'লার কারিকোনা গ্রামের সমশাদ আলীর পুত্র ও ইস্টান ব্যাংক বিশ্বনাথ শাখার সাবেক ব্যাংক কর্মক'র্তা ফরিদ উদ্দিন আহম'দ (৩৫) এর লা'শ অবশেষে দেশে আসছে আজ বৃহস্পতিবার (৩ অক্টোবর)। বিমানের একটি ফ্লাইটে সকাল ১০টায় সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে লা'শ এসে পৌঁছবে বলে নিশ্চিত করেছেন নি'হতের ছোট ভাই যুক্তরাজ্য প্রবাসী কাওছার আহম'দ।

২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত ফুটবল বিশ্বকাপ দেখতে রাশিয়া যান ফরিদ উদ্দিন আহমেদ। খেলা শেষ হওয়ার মাস খানেক পর তিনি রাশিয়া থেকে ইউক্রেন যান এবং সেখান থেকে গত ২৮ আগস্ট দালালের মাধ্যমে ৫জন সঙ্গীর সাথে ইউক্রেন থেকে ফ্রান্সের উদ্দেশ্যে পায়ে হেঁটে যাত্রা করেন ফরিদ। এরপর ২ সেপ্টেম্বর ফরিদের সঙ্গীরা ফ্রান্স পৌঁছলেও নি'খোঁজ হয়ে যান ফরিদ। পরিবারের পক্ষ থেকে দালাল ও সঙ্গীদের সাথে যোগাযোগ করা হলে পরিবারের সাথে তারা নানান তালবাহানা করতে থাকে। একপর্যায়ে গত ৯ সেপ্টেম্বর স্লো'ভাকিয়ার স্টারিনার দূর্গম পাহাড়ি এলাকা এলাকার একটি পর্যটন স্পট থেকে ফরিদের ম'রহেদ উ'দ্ধার করে সেদেশের পু'লিশ। ওই দিন অ'জ্ঞাতনামা যুবকের লা'শ উ'দ্ধার করা হয়েছে বলে ‘জওজে টিভি’র বরাত দিয়ে সেদেশের ‘নোভেনী ডট এসকে’ নামের একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল সংবাদটি প্রচার করে। ফরিদের স্বাজনরা যুক্তরাজ্য থেকে স্লো'ভাকিয়ায় গিয়ে সেদেশের একটি ম'র্গে ফরিদ উদ্দিন আহম'দের লা'শ সনাক্ত করেন। এরপর লা'শ দেশে নিয়ে আসতে তারা অনেক প্রচেষ্টা চালিয়ে যান। একপর্যায়ে লা'শ বাংলাদেশে নিয়ে আসতে আন্তর্জাতিক একটি প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তি করেন ফরিদের স্বজনরা। দীর্ঘ প্রচেষ্টার পর ওই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে অবশেষে দেশে আনা হচ্ছে ফরিদ উদ্দিন আহম'দের লা'শ।

ফরিদ উদ্দিন আহম'দের ছোট ভাই প্রবাসী কাওছার আহম'দ জানান, বুধবার (২ অক্টোবর) রাতে যুক্তরাজ্যের হিথরো বিমান বন্দর থেকে একটি ফ্লাইটে ফরিদ উদ্দিন আহম'দের ম'রদেহ নিয়ে আসা হচ্ছে। সঙ্গে রয়েছেন তার চাচা যুক্তরাজ্য প্রবাসী আলকাছ আলী (আওলাদ)। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় সিলেট বিমান বন্দরে লা'শ এসে পৌঁছার কথা রয়েছে। পরিবারের সদস্যরা বিমানবন্দর থেকে ময়না ত'দন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ ম'র্গে নিয়ে যাওয়া হবে। জানাযার নামাজের সময় এখনো নির্ধারণ করা হয়নি বলে তিনি জানান।