কাগতিয়া দরবারে খতমে কোরআন মাহফিলে মুসল্লিদের ঢল

নিউজ ডেস্কঃচট্টগ্রাম জেলার রাউজান কাগতিয়া আলীয়া গাউছুল আজম দরবার শরীফে বৃহস্পতিবার ৩ রমজান ৯ এপ্রিল অুনষ্ঠিত হয়ে গেলো ঐতিহাসিক খতমে কোরআন মাহফিল।

কাগতিয়া দরবারের মহিয়সী রমণী হযরত রুহানী আম্মাজান রাহমাতুল্লাহি আলাইহার বার্ষিক ফাতেহা শরীফ উপলক্ষে প্রতি বছর ৩ রমজান এ খতমে কোরআন মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও এ খতমে কোরআন মাহফিলে অগণিত ধর্মপ্রাণ মুসলমানের ঢল নামে।

সকাল থেকেই চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে কাগতিয়া দরবারের হাজার হাজার অনুসারি, ভক্ত, শত শত হাফেজ, আলেম থেকে শুরু করে সর্বস্তরের ধর্মপ্রাণ রোজাদার মুসলমানেরা কাগতিয়া আসতে থাকে। সকলে প্রথমে কাগতিয়া দরবারের প্রতিষ্ঠাতা হযরত গাউছুল আজম রাদ্বিয়াল্লাহু আনহুর রওজা শরীফ জেয়ারত করেন।

পরে যে যেখানে বসতে পেরেছে রওজা পাক, মসজিদ, মসজিদের বারান্দায় বসে কোরআন তেলাওয়াত করতে থাকেন। যারা কোরআন পড়তে জানেন না তারা তসবিহ হাতে খতমে তাহলিল আদায় করতে থাকেন। ছোট শিশুরাও দলবেঁধে আল্লাহ আল্লাহ ধনিতে জিকির করতে থাকে। এ যেন এক অপরুপ দৃশ্য প্রবাসে থাকা কাগতিয়া দরবারের অনুসারীরা ও নিজগৃহে অবস্থানরত এ দরবারের হাজারো মহিলা অনুসারীরা কোরআন তেলাওয়াত করতে থাকেন।

পবিত্র রমজান মাস কোরআন নাযিলের মাস। হযরত ফাতিমা (রাঃ)’র ওফাত দিবসও আজ এ মহান দিবসে। আর এ দিনে ও মাসে খতমে কোরআনের এ সুন্দর আয়োজনের প্রবর্তন করেন হযরত গাউছুল আজম রাদ্বিয়াল্লাহু আনহু। যা প্রতি বছর ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে পালিত হয়ে আসছে।

সকাল ৮টা হতে শুরু হয়ে অপূর্ব মনোরম জান্নাতী পরিবেশে ১.৩০ মিনিট পর্যন্ত বিরামহীনভাবে তেলাওয়াতে কোরআন ও তাহলীল চলতে থাকে। এতে মোট ১৫৫৮৭ টি খতমে কোরআন এবং ১১৫৩ টি খতমে তাহলীল (১টি তাহলীল সমান এক লক্ষ পঁচিশ হাজার বার আল্লার জিকির করা) আদায় করা হয়।

পরিশেষে জোহরের নামাজের পর মিলা-কিয়ামের মাধ্যমে মুসলিম বিশ্বের অগ্রগতি, জাতি ও দেশের উন্নতি, উপস্থিত সকলের মনোবাসনা পূরণ, মরহুম তরিক্বতপন্থিদের মাগফেরাত, রুহানী আম্মাজান (রঃ) এঁর রফ-এ-দরাজাত ও দরবারের প্রতিষ্ঠাতা হযরত শায়খ ছৈয়্যদ গাউছুল আজম রাদ্বিয়াল্লাহু আনহু’র ফুয়ুজাত কামনা করে মোনাজাত পরিচালনা করা হয়।